কুরবানি দাতার জন্য ঈদের দিন কোন কিছু না খেয়ে ঈদের মাঠে যাওয়া তারপর সর্বপ্রথম কুরবানির গোশত খাওয়া সুন্নত

❐ প্রশ্ন: কুরবানির দিন কুরবানির পশু জবাই করার আগ পর্যন্ত না খেয়ে থাকার কি কোনও নিয়ম আছে? উত্তর: কুরবানি দাতার জন্য কুরবানির দিন ঈদের সালাতের পূর্বে কোন কিছু না খাওয়া সুন্নত। বরং ঈদের সালাত শেষে খাওয়া উত্তম। বিশেষ করে যদি ঈদের সালাত শেষে কুরবানির গোশত খাওয়া হয় তাহলে তা অধিক উত্তম। – প্রখ্যাত সাহাবি বুরায়দা …

Read more

Share On Social Media

কুরবানি এবং ঈদের বিধিবিধান ও আদব

মূল: শাইখ মুহাম্মদ বিন সালিহ আল উসাইমিন রহ. অনুবাদ: আব্দুল্লাহিল হাদী বিন আব্দুল জলীল। الحمد لله والصلاة والسلام على رسول الله. أما بعد ❑ কুরবানির বিধি-বিধান: কুরবানি মূলত: জীবিত মানুষের জন্য। যেমন নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম এবং সাহাবায়ে কেরাম নিজেদের পক্ষ থেকে এবং তাঁদের পরিবার-পরিজনের পক্ষ থেকে কুরবানি করতেন। কিন্তু কিছু মানুষ মনে করে …

Read more

Share On Social Media

ঈদ ও তাশরিকের দিনগুলোতে তাকবির পাঠ করার দলিল এবং বিশুদ্ধ সূত্রে বর্ণিত তাকবিরের শব্দাবলী

প্রশ্ন: আমাদের দেশের এক বক্তা বলেছেন যে, ‘তাকবিরে তাশরিক হিসেবে আল্লাহু আকবার, আল্লাহু আকবার, লা-ইলা-হা ইল্লাল্লা-হু ওয়াল্লা-হু আকবার, আল্লাহু আকবার, ওয়ালিল্লাহিল হামদ” পাঠ করা যাবে না। কারণ এ সংক্রান্ত হাদিসগুলো জাল। সুতরাং কেউ তা ঈদ বা তাশরিকের তাকবির হিসেবে পাঠ করলে বিদআত হবে। কিন্তু বিশেষ সময় নির্দিষ্ট না করে যে কোনও সময় তা পাঠ করা …

Read more

Share On Social Media

আরাফা দিবস মহান আল্লাহর পক্ষ থেকে মানবজাতির প্রতি সর্বশ্রেষ্ঠ অফার

নিঃসন্দেহে আরাফাত দিবস মহান আল্লাহর পক্ষ থেকে মানব জাতির প্রতি বছরের শ্রেষ্ঠ অফার। অধিকাংশ আলেমের মতে, এটি বছরের শ্রেষ্ঠ দিন। হাজিগণ এ দিন ঐতিহাসিক আরাফার ময়দানে উপস্থিত থাকবেন-যা হজের একটি রোকন। এ দিন আল্লাহ নিচের আসমানে নেমে এসে আরাফায় উপস্থিত হাজিদেরকে নিয়ে গর্ব করবেন এবং এত বিশাল পরিমাণ হাজিকে জাহান্নামের আগুণ থেকে মুক্তি ঘোষণা করবেন …

Read more

Share On Social Media

সাধারণ তাকবির ও বিশেষ তাকবির কী এবং কখন ও কীভাবে তা পাঠ করতে হয়

🔸সাধারণ তাকবির পাঠ: জিলহজের প্রথম দিন থেকে আল্লাহ রাব্বুল আলামিনের বড়ত্ব ঘোষণার উদ্দেশ্যে তাকবির পাঠ করা সুন্নত। এ তাকবির প্রকাশ্যে ও উচ্চস্বরে মসজিদ, ঘর-বাড়ি, রাস্তা-ঘাট, বাজারসহ সর্বত্র উচ্চ আওয়াজে পাঠ করা যাবে। সলাতের আগে কিংবা পরে, সকাল-সন্ধ্যা, দিন-রাত যে কোন সময় পড়া ভালো। তবে মেয়েরা নিম্ন স্বরে তাকবির পাঠ করবে। 🔸 তাকবির: বিন বায র. …

Read more

Share On Social Media

একজন সাবলম্বী লোকের পক্ষ থেকে কি অন্য একজন কুরবানি দিতে পারবে

উত্তর: হ্যাঁ, কেউ ইচ্ছা করলে আল্লাহর সন্তুষ্টির উদ্দেশ্যে অন্য কোন জীবিত ব্যক্তির পক্ষ থেকে কুরবানি দিতে পারবে। যার পক্ষ থেকে কুরবানি দেওয়া হবে সে চাই স্বাবলম্বী হোক অথবা হতদরিদ্র হোক। ‌তবে শর্ত হল, তার সম্মতিক্রমে হতে হবে। তাহলে যার পক্ষ থেকে কুরবানি করা হবে, সে কুরবানির সওয়াব পাবে আর যে তার পক্ষ থেকে কুরবানি দিবে …

Read more

Share On Social Media

হারাম মাস বলতে কী বুঝায় এবং হারাম মাস কয়টি ও কী কী এবং এগুলোকে কেন হারাম মাস বলা হয়

উত্তর: আল্লাহ তাআলা বলেন, إِنَّ عِدَّةَ الشُّهُورِ عِندَ اللَّهِ اثْنَا عَشَرَ شَهْرًا فِي كِتَابِ اللَّهِ يَوْمَ خَلَقَ السَّمَاوَاتِ وَالْأَرْضَ مِنْهَا أَرْبَعَةٌ حُرُمٌ ۚ ذَٰلِكَ الدِّينُ الْقَيِّمُ ۚ فَلَا تَظْلِمُوا فِيهِنَّ أَنفُسَكُمْۚ “প্রকৃতপক্ষে আল্লাহর কাছে মাসের সংখ্যা ১২টি। যা আল্লাহর কিতাব অনুযায়ী সেই দিন থেকে চালু আছে যে দিন তিনি আকাশমণ্ডল ও পৃথিবী সৃষ্টি করেছিলেন। এর …

Read more

Share On Social Media

জিলহজ মাস শুরু হলে যে ব্যক্তি কুরবানি করতে চায় তার জন্য কুরবানি হওয়া পর্যন্ত চুল, নখ ইত্যাদি কাটা হারাম

জিলহজ মাস শুরু হলে যে ব্যক্তি কুরবানি করতে চায় তার জন্য শরীরের অতিরিক্ত পশম (যেমন: মাথার চুল, নাভির নিচের বা বগলের পশম ইত্যাদি) কাটা জায়েজ নাই। কারণ উম্মে সালামা রা. হতে বর্ণিত। রসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেন, إذا دخل شهر ذي الحجة وأراد أن يضحي فلا يأخذ من شعره ولا من أظفاره شيئاً “জিলহজ …

Read more

Share On Social Media