কোরআন ও সহীহ সুন্নাহ ভিত্তিক প্রশ্নোত্তর প্রচার করাই হল এই ওয়েবসাইটের মূল উদ্দেশ্য।।

বেগানা নারী-পুরুষ একে অপরকে আল্লাহর জন্য ভালোবাসার বিধান

প্রশ্ন: আল্লাহর সন্তুষ্টির উদ্দেশ্যে বেগানা নারী-পুরুষ পরস্পরকে ভালোবাসতে পারবে কি? বা একজন বেগানা নারী কোনও বেগানা পুরুষকে বলতে পারে কি যে, “আমি আপনাকে আল্লাহর জন্য ভালোবাসি?” উত্তর: কোনও আলেম বা দীনদার ব্যক্তিকে তার ইলম, দাওয়াত, দীনের খেদমত, তাকওয়া, উত্তম চরিত্র ইত্যাদি কারণে আল্লাহর উদ্দেশ্যে ভালবাসা জায়েজ। বরং তা নিম্নোক্ত হাদিসের অন্তর্ভুক্ত হিসেবে গণ্য হবে ইনশাআল্লাহ। … Read more

Share This Post

পুত্র সন্তান লাভের জন্য কি বিশেষ কোনও দুআ আছে

প্রশ্ন: পুত্র সন্তান লাভের জন্য কুরআন-সুন্নায় কি নির্দিষ্ট কোনও দুআ বর্ণিত হয়েছে? কোনও কোনও হুজুর পুত্র সন্তান লাভের জন্য সূরা সফফাতের ১০০ নাম্বার আয়াত পাঠের বিশেষ আমল দিয়ে থাকেন। এটি কি সঠিক? উত্তর: নি:সন্দেহে নেক সন্তান প্রাপ্ত হওয়া বান্দার প্রতি মহান রবের বিরাট বড় অনুগ্রহ। কুরআন-হাদিসে শুধু পুত্র সন্তান বা কন্যা সন্তান চাওয়ার জন্য বিশেষ … Read more

Share This Post

বয়স্ক পুরুষদের সামনে নারীদের বেপর্দা হওয়ার হুকুম কি

প্রশ্ন: বয়স্ক পুরুষদের সামনে নারীদের বেপর্দা হওয়ার হুকুম কি? উত্তর: নারীদের জন্য মাহরাম নয় এমন পুরুষদের সামনে বেপর্দা হওয়া জায়েজ নয় যদিও তারা বয়স্ক হয়। কারণ আল্লাহ তাআলা বলেন, أَوِ التَّابِعِينَ غَيْرِ أُولِي الْإِرْبَةِ مِنَ الرِّجَالِ أَوِ الطِّفْلِ الَّذِينَ لَمْ يَظْهَرُوا عَلَىٰ عَوْرَاتِ النِّسَاءِ “(নারীরা যেন) যৌনকামনামুক্ত পুরুষ ও বালক, যারা নারীদের গোপন অঙ্গ সম্পর্কে … Read more

Share This Post

নিজের জন্মদাতা বাবা/মা ছাড়া অন্য কাউকে বাবা/মা বলা জায়েজ আছে কি

প্রশ্ন: রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেন: ” যে ব্যক্তি আপন পিতা ছাড়া অন্যকে পিতা বলে মেনে নেয় অথচ সে জানে যে, সে তার পিতা নয়, তার জন্য জান্নাত হারাম।” [সহীহ মুসলিম হাদিস নং- ১২৩] এখন আমরা যারা শ্বশুর-শাশুড়িকে বাবা-মা বলি তাদের ক্ষেত্রেও এই হাদিসটি প্রযোজ্য হবে? উত্তর: শ্বশুরকে ‘বাবা’ আর শাশুড়িকে ‘মা’ বলা আমাদের … Read more

Share This Post

নিজের নামের সাথে পিতার পরিবর্তে স্বামীর নাম যুক্ত করা এবং স্বামীর নামে পরিচয় দেয়া হারাম

প্রশ্ন: ইসলামের দৃষ্টিতে কোনও বিবাহিত নারীর সাথে স্বামীর নাম যুক্ত করা এবং স্বামীর পরিচয়ে পরিচিত হওয়ার বিধান কি? ইসলামের সঠি জ্ঞানের অভাব বা অন্য কোনও কারণে যদি কোনো নারীর নামের সাথে তার স্বামীর নাম যুক্ত হয়ে যায় এবং জাতীয় পরিচয় পত্র সহ সকল সরকারী-বেসরকারি কাগজপত্রে সেই নাম উল্লেখ থাকে-যা পরিবর্তন করা প্রায় অসম্ভব। তাহলে সে … Read more

Share This Post

মাগরিব সালাতের শুরু এবং শেষ সময়

প্রশ্ন: মাগরিব সালাতের শুরু এবং শেষ সময় উত্তর: সূর্য পরিপূর্ণভাবে অস্ত গেলে মাগরিব সালাতের সময় শুরু হয় এবং পশ্চিম দিগন্তে রক্তিম আভা (الشفق) ডুবে যাওয়া পর্যন্ত তা অবশিষ্ট থাকে। রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেন, وَوَقْتُ صَلَاةِ الْمَغْرِبِ مَالَمْ يَغِبِ الشَّفَقُ “এবং মাগরিবের সালাতের ওয়াক্ত থাকে যতক্ষণ না শাফাক অন্তর্হিত হয়।” [সহীহ মুসলিম, হা/ ১৪১৯] … Read more

Share This Post

প্রত্যেক জুমার দিন ১ কোটি ৪৪ লক্ষ জাহান্নামিকে জাহান্নাম থেকে মুক্তি দেয়া সংক্রান্ত হাদিসটি সহিহ নয়

প্রশ্ন: নিচের হাদিসটি কতটুকু সহিহ? রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, “প্রত্যেক জুমার দিন ১ কোটি ৪৪ লক্ষ জাহান্নামিকে জাহান্নাম থেকে মুক্তি দেওয়া হয়।” [মুসনাদে আবু ইয়ালা, ৩য় খণ্ড, ২৯১, ২৩৫ পৃঃ হাদিস ৩৪২১,৩৪৭১] উত্তর: জুমার দিন জাহান্নাম অবধারিত এমন বহু সংখ্যক মানুষকে জাহান্নামের আগুন থেকে মুক্ত ঘোষণা সংক্রান্ত হাদিসটি সহিহ নয়। নিম্নে উক্ত হাদিস … Read more

Share This Post

আরবি সাধারণ কথাবার্তায় তাজবিদের ব্যবহার এবং ইনশাআল্লাহ বনাম ইং শা‌ আল্লাহ”

প্রশ্ন: আরবি নরমাল কনভারসেশনে কি তাজউইদ এর নিয়মাবলী তথা: গুন্নাহ, মদ্দ ইত্যাদি ঠিক রাখা জরুরি? নাকি শুধু কুরআন পড়ার ক্ষেত্রে এসব বিধান ঠিক রাখব? আর আমরা যে “ইন শা আল্লাহ “বলি এটা তো নরমাল কনভারসেশনের মধ্যেই পড়ে। তাহলে এখানে কি ইখফার নিয়মে “ইং শা আল্লাহ” বলতে হবে? উত্তর: ◈ তাজবিদের নিয়মাবলী তথা ইযহার, ইকলাব, ইদগাম, … Read more

Share This Post

ইসলামে যৌবনকালের গুরুত্ব এবং তার মেয়াদকাল

প্রশ্ন: ইসলামে যৌবনকালের গুরুত্ব কি এবং যৌবনকালের মেয়াদ কত দিন? (যৌবন কত বছর বয়স থেকে শুরু হয় এবং কত বছরে শেষ হয়) উত্তর: আমাদের অজানা নয় যে, মানব জীবনে একাধিক ধাপ রয়েছে। শৈশব, কৈশোর, যৌবন, প্রৌঢ়ত্ব ও বার্ধক্য। এগুলোর মধ্যে যৌবনকাল হল, সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। এ সময় কালটাকে বলা হয়, Golden age of life বা জীবনের … Read more

Share This Post

শুক্রবারে সূরা কাহফ কি আরবিতেই পড়তে হবে

প্রশ্ন: শুক্রবারে সূরা কাহফ কি আরবিতেই পড়তে হবে? কেউ যদি তার বাংলা অনুবাদ পড়ে তাহলে কি তা জায়েজ হবে? উত্তর: সূরা কাহফ এর ফযিলত পাওয়ার জন্য অবশ্যই তা কুরআনের ভাষা আরবিতে পাঠ করতে হবে। অনুবাদ পাঠ দ্বারা কুরআন তিলাওয়াতের সওয়াব পাওয়া যায় না। কারণ অনুবাদ মূলত: কুরআন বুঝা ও কুরআনের ব্যাখ্যা জানার শামিল। এর জন্য … Read more

Share This Post

জুমার রাতে সূরা দুখান পাঠের ফযিলত সংক্রান্ত হাদিস সহিহ নয়

প্রশ্ন: জুমার রাতে সূরা দুখান পড়ার হাদিসটি কি সহিহ? উত্তর: জুমার রাতে সূরা দুখান পড়ার ব্যাপারে যে সব হাদিস পাওয়া যায় সেগুলোর কোনওটাই সহিহ নয়। নিম্নে এ প্রসঙ্গে দুটি হাদিস হাদিস উল্লেখ পূর্বক বিজ্ঞ মুহাদ্দিসগণের অভিমত পেশ করা হল: ◈ ১ম হাদিস: مَن قرأ ( حم الدُّخَانَ ) في ليلةِ الْجُمُعَةِ غُفِرَ له “যে ব্যক্তি … Read more

Share This Post

পাগড়ি সংক্রান্ত নিম্নোক্ত হাদিসটি কি সহিহ

প্রশ্ন: পাগড়ি সংক্রান্ত নিম্নোক্ত হাদিসটি কি সহিহ? রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেন, عَلَيْكُمْ بِالْعَمَائِمِ فَإِنَّهَا سِيمَا الْمَلَائِكَةِ ”তোমরা পাগড়ি বাঁধ। কেননা তা ফেরেশতাদের প্রতীক।” [সূত্র: শুআবুল ইমান, হাদিস নং- ৫৮৫১]। উত্তর: হাদিসটি সহিহ নয়। নিম্নে এ প্রসঙ্গে কয়েকজন মুহাদ্দিসের অভিমত তুলে ধরা হল: ◈ ইমাম যাহাবি বলেন, এটি মুনকার (যা মারাত্মক পর্যায়ের দুর্বল)। [মিযানুল … Read more

Share This Post

মহিলাদের মাথার চুল মুণ্ডন করার বিধান এবং সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়া একটি হাদিস কেন্দ্রিক বিভ্রান্তির অবসান

প্রশ্ন: সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় একটা হাদিসকে কেন্দ্র করে মহিলাদের মাথায় উকুন হলে তাদের চুল মুণ্ডন করার বিষয়টি ব্যাপকভাবে আলোচিত হচ্ছে। হাদিসটি হল: নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম জিজ্ঞাসা করলেন, “তোমার পোকাগুলো (মাথার উকুনগুলো) কি তোমাকে কষ্ট দিচ্ছে?” তিনি বললেন, হ্যাঁ। তখন তিনি বললেন, “তাহলে তুমি তোমার মাথা মুণ্ডন করে ফেলো এবং ছয়জন মিসকিনকে খাবার খাইয়ে … Read more

Share This Post

স্বামীর অনুমতি ছাড়া অন্যের সন্তানকে দুধ পান করানোর বিধান

প্রশ্ন: কোনও নারী তার স্বামীর অনুমতি ব্যতীত কোনও এতিম শিশুকে নিজের দুধ পান করাতে পারবেন কি? উত্তর: এ বিষয়ে আলেমগণ বলেছেন, স্ত্রী যদি বুঝতে পারে যে, তার স্বামী তা পছন্দ করবে না তাহলে তার সম্মতি ছাড়া অন্যের সন্তানকে দুধ পান করাতে পারবে না। কারণ সে তার স্বামীর ভরণ-পোষণের উপর নির্ভরশীল। সুতরাং তার স্তনের দুধ স্বামীর … Read more

Share This Post

যদি বিনা কারণে কোনও পুরুষের জন্য নারীর চোখে এক ফোটা পানিও পড়ে তবে ফেরেশতাগণ ঐ পুরুষকে তার প্রতি পদক্ষেপে অভিশাপ দেবে এটা কি সত্যি

প্রশ্ন “যদি বিনা কারণে কোনও পুরুষের জন্য নারীর চোখে এক ফোটা পানিও পড়ে তবে ফেরেশতাগণ ঐ পুরুষকে তার প্রতি পদক্ষেপে অভিশাপ দেবে।” এটা কি সত্যি? উত্তর: এটি রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম এর হাদিস হিসেবে নয় বরং আলি রা. এর উক্তি হিসেবে পরিচিত। তা হল: عن علي بن أبي طالب رضي الله عنه : ” … Read more

Share This Post