কোরআন ও সহীহ সুন্নাহ ভিত্তিক প্রশ্নোত্তর প্রচার করাই হল এই ওয়েবসাইটের মূল উদ্দেশ্য।।

ঈমান

জাতীয় পতাকাকে স্যালুট জানানো বা দাঁড়িয়ে সালাম দেয়া কি জায়েজ

প্রশ্ন: জাতীয় পতাকাকে স্যালুট জানানো বা দাঁড়িয়ে সালাম দেয়া কি জায়েজ? যদি স্কুলের শিক্ষকরা ছাত্র-ছাত্রীদেরকে জাতীয় পতাকায় দাঁড়িয়ে সম্মন প্রদর্শন করতে আদেশ করে তাহলে কী করণীয়? ▬▬▬▬◢◯◣▬▬▬▬ উত্তর: কোন মুসলিমের জন্য জাতীয় পতাকা কে স্যালুট দেওয়া বা দাঁড়িয়ে সালাম করা ইসলামের দৃষ্টিতে জায়েজ নেই। মূলত এটি অমুসলিমদের থেকে মুসলিম সমাজে অনুপ্রবেশ করেছে। এটি পাশ্চাত্যের অন্ধ …

জাতীয় পতাকাকে স্যালুট জানানো বা দাঁড়িয়ে সালাম দেয়া কি জায়েজ Read More »

যে ব্যক্তি মনে করে, নারী-পুরুষের সমান অধিকার না দিয়ে ইসলাম নারীর প্রতি যুলুম করেছে

প্রশ্নঃ যে ব্যক্তি মনে করে, নারী-পুরুষের সমান অধিকার না দিয়ে ইসলাম নারীর প্রতি যুলুম করেছে, সে ব্যক্তির বিধান কি? উত্তরঃ ইসলাম নারীকে পুরুষের সমান অধিকার না দিলেও, তাকে তাঁর যথাযথ অধিকার দান করেছে। ইসলাম তাঁর প্রতি কোন অন্যায় করেনি। ইসলামের এ অধিকার বণ্টনকে যদি কেও অস্বীকার করে এবং অন্যায় ও অবিচার মনে করে, তাহলে সে …

যে ব্যক্তি মনে করে, নারী-পুরুষের সমান অধিকার না দিয়ে ইসলাম নারীর প্রতি যুলুম করেছে Read More »

ইসলাম, ঈমান ও ইহসান কি?

ইসলাম, ঈমান ও ইহসান কি? ==============++++++================ উমার রাদিয়াল্লাহু ‘আনহু হতে বর্ণিত হয়েছে, তিনি বলেন, একদিন আমরা রাসূলুল্লাহ্ সাল্লাল্লাহু ‘আলাইহি ওয়াসাল্লামের নিকট বসেছিলাম, এমন সময় হঠাৎ এক ব্যক্তি আমাদের সামনে উপস্থিত হয়, যার কাপড় ছিল ধবধবে সাদা, চুল ছিল ভীষণ কালো; তার মাঝে ভ্রমণের কোন লক্ষণ পরিলক্ষিত হচ্ছিল না। আমাদের মধ্যে কেউ তাকে চিনতে পারে নি। …

ইসলাম, ঈমান ও ইহসান কি? Read More »

রাগ, হিংসা ও জেদ

প্রশ্ন: আমার মধ্যে যদি হিংসা, রাগ, জেদ ইত্যাদি থাকে তাহলে কি আমার ঈমান ঠিক থাকবে? উত্তর: রাগ, জেদ, হিংসা ইত্যাদিগুলো মানুষের মধ্যে থাকা অস্বাভাবিক নয়। কেননা, এগুলো মানুষের মানবিক বৈশিষ্ট্য। প্রতিটি মানুষের মধ্যেই কমবেশি এগুলো রয়েছে। কিন্তু উত্তম তো সেই ব্যক্তি যে এগুলোকে প্রতিহত করে। 🌀 রাগ: রাগ মানব জীবনের একটি দুর্বল পয়েন্ট। অতিরিক্ত রাগের …

রাগ, হিংসা ও জেদ Read More »

আসমানি কিতাব সমূহের প্রতি বিশ্বাস এবং সেগুলোর সংখ্যা নিয়ে বিভ্রান্তি নিরসন

আসমানি কিতাব সমূহের প্রতি বিশ্বাস এবং সেগুলোর সংখ্যা নিয়ে বিভ্রান্তি নিরসন (আসমানি কিতাব ১০৪ খানা-এ তথ্য কি সঠিক?) ▬▬▬◄❖►▬▬▬ প্রশ্ন: আমরা ছোটকাল থেকে শুনে এসেছি যে, আসমানী কিতাবের সংখ্য একশ চার খানা। সেগুলো মধ্যে প্রসিদ্ধ চার খানা। সহিহ হাদিসের আলোকে এ কথা কি প্রমাণিত? আশা করি ‘আসমানী কিতাব সমূহের উপর বিশ্বাস’ সংক্রান্ত বিষয়ে সঠিক তথ্য …

আসমানি কিতাব সমূহের প্রতি বিশ্বাস এবং সেগুলোর সংখ্যা নিয়ে বিভ্রান্তি নিরসন Read More »

নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম সম্পর্কে মনে কু ধারণা আসলেই কি ঈমান নষ্ট হয়ে যাবে?এমনটি হলে কী করণীয়?

প্রশ্ন: নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম সম্পর্কে কেউ যদি মনে কু ধারণা পোষণ করে বা এমনিতেই খারাপ ধারণা চলে আসে তাহলে কি তার ঈমান চলে যাবে? এমনটি হলে কী করণীয়? উত্তর: মহান আল্লাহ সাত আসমানের উপর থেকে আমাদের নবী মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের উত্তম চরিত্রের সার্টিফিকেট দিয়েছেন। যা কুরআনে উল্লেখিত রয়েছে। কিয়ামত পর্যন্ত সমগ্র …

নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম সম্পর্কে মনে কু ধারণা আসলেই কি ঈমান নষ্ট হয়ে যাবে?এমনটি হলে কী করণীয়? Read More »

আমি সবকিছুতে অনেক বেশি ভয় পাই

প্রশ্ন: আমি সবকিছুতে অনেক বেশি ভয় পাই। আলহামদুলিল্লাহ আমি সহীহভাবে ইবাদত পালন করি, তবুও ভয় লাগে। মনে হয়, মরে যাব। তখন অস্থির লাগে। এজন্য অনেকেই বলে, এত ইবাদত করেও আমার ঈমান ঠিক নাই। আসলেই কি আমার ঈমান ঠিক নাই? বুঝিয়ে বলবেন। উত্তর: যে কোনো ইবাদতের পর মনের মধ্যে তা আল্লাহর নিকট প্রত্যাখ্যাত হওয়ার ভয় থাকতে …

আমি সবকিছুতে অনেক বেশি ভয় পাই Read More »

নবী-রাসূল, অলী-আউলিয়া, বুজুর্গ, আলেম প্রমুখের নিকট কি শাফায়াত প্রার্থনা করা যায়

নবী-রাসূল, অলী-আউলিয়া, বুজুর্গ, আলেম প্রমুখের নিকট কি শাফায়াত প্রার্থনা করা যায়? অথবা তাদের অসীলায় কি আল্লাহর নিকট কোন কিছু চাওয়া জায়েজ আছে? ১ম প্রশ্ন: অনেকে বলে, আমরা অলী-আউলিয়া ও বুজুর্গ লোকদের নিকট বিপদাপদ থেকে উদ্ধার কামনা করি। তবে তাদের নিকট আমরা যা চাই তা হল কিয়ামতের দিন যেন তারা আল্লাহর দরবারে আমাদের জন্য শাফায়াত করে। …

নবী-রাসূল, অলী-আউলিয়া, বুজুর্গ, আলেম প্রমুখের নিকট কি শাফায়াত প্রার্থনা করা যায় Read More »

বিপদ-সঙ্কট ও বিপর্যয় কি আমাদের কর্মফল না কি ভাগ্যের লিখন ?

প্রশ্ন: আপাত দৃষ্টিতে আমাদের ভুলের কারণে বা আমাদের পাপের কারণে সৃষ্ট সমস্যা ও পেরেশানিকে আমরা আমাদের কর্মফল ভাববো নাকি আল্লাহর সিদ্ধান্ত (ভাগ্যের লিখন) ভেবে সে অবস্থার উপর সবর করব? উত্তর: পৃথিবীতে যত বিপর্যয়, বালা-মুসিবত, পেরেশানী ও ক্ষয়-ক্ষতি সংঘটিত হয় তা অবশ্যই মানুষের কৃতকর্মের ফল। কারণ যখন মানুষ অন্যায়-অবিচার-পাপাচার করতে করতে সঠিক পথ থেকে অনেক দূরে …

বিপদ-সঙ্কট ও বিপর্যয় কি আমাদের কর্মফল না কি ভাগ্যের লিখন ? Read More »

আল্লাহর হুকুমেই কি সব কিছু হয়?

প্রশ্ন: আল্লাহর হুকুমেই কি সব কিছু হয়? আল্লাহর হুকুম ছাড়া কি বিয়েও হয় না? ●●●●●✪✪✪●●●●● উত্তর: আল্লাহর সৃষ্টি জগতে তার লিখিত তকদীর এর বাইরে কোন কিছুই ঘটে না। যা তিনি তার বিশাল ভবিষ্যৎ জ্ঞানের আলোকে সৃষ্টির পঞ্চাশ হাজার পূর্বেই লিপিবদ্ধ করে রেখেছেন। ▪ যেমন আল্লাহ তাআলা বলেন, إِنَّا كُلَّ شَيْءٍ خَلَقْنَاهُ بِقَدَرٍ “আমি প্রত্যেক বস্তুকে সু …

আল্লাহর হুকুমেই কি সব কিছু হয়? Read More »

আমাদের জীবনে যা কিছু হয় ভালোর জন্য হয়। এ কথাটি কতটুকু সঠিক?

প্রশ্ন: আমাদের জীবনে কোন কিছু ঘটলেই আমরা প্রায় সবাই বলে থাকি “জীবনে যা কিছু হয় ভালোর জন্য হয়।” এ কথাটি কতটুকু সঠিক? এটা বলা কি ঠিক? উত্তর:  হ্যাঁ, উক্ত কথাটি সঠিক। এটি আল্লাহর প্রতি সুধারণা পোষণ ও ভাগ্যের প্রতি বিশ্বাসের বহিঃপ্রকাশ। মুমিনের জীবনে ভালো-মন্দ যা কিছু ঘটুক না কেন-বিশ্বাস করতে হবে-অবশ্যই তাতে কল্যাণ নিহিত রয়েছে। …

আমাদের জীবনে যা কিছু হয় ভালোর জন্য হয়। এ কথাটি কতটুকু সঠিক? Read More »

মনের মধ্যে দ্বীন-ইসলাম, আল্লাহ, রাসূল ইত্যাদি সম্পর্কে সংশয়, সন্দেহ ও কুচিন্তা জাগ্রত হলে তা থেকে মুক্তির উপায়

প্রশ্ন: কখনো কখনো মনে সংশয় ও সন্দেহ সৃষ্টি হয় যে, আমি যে ধর্ম পালন করছি, সেটা আসলে সঠিক নাকি সঠিক নয়। যদি মনে এ ধরণের কু চিন্তা উঁকি দেয় তাহলে কী করণীয়? এ থেকে মুক্তির উপায় কি? কারো মধ্যে যদি এই ধরণের সংশয় দেখা যায় তাহলে কি সে এর মাধ্যমে ইসলাম থেকে বের হয়ে যাবে …

মনের মধ্যে দ্বীন-ইসলাম, আল্লাহ, রাসূল ইত্যাদি সম্পর্কে সংশয়, সন্দেহ ও কুচিন্তা জাগ্রত হলে তা থেকে মুক্তির উপায় Read More »

মানুষ সৃষ্টির ৫০ হাজার বছর পূর্বে ভাগ্য লেখা হয়েছে

প্রশ্নঃ একটা হাদিসে পাওয়া যায় যে মানুষ সৃষ্টির ৫০ হাজার বছর পূর্বে ভাগ্য লেখা হয়েছে আবার আরেকটা হাদিসে পাওয়া যায় যে মায়ের গর্ভে আসার পর তার ভাগ্য লেখা হয় আসলে কোনটা সঠিক? জি মানুষ সৃষ্টির উত্তরঃ মানুষ সৃষ্টির ৫০ হাজার বছর পূর্বে যে তাকদীর লেখা হয়েছে সেটা “লাওহে মাহফুজে” আল্লাহ রাব্বুল আলামিন লিখে রেখেছেন সেটা …

মানুষ সৃষ্টির ৫০ হাজার বছর পূর্বে ভাগ্য লেখা হয়েছে Read More »