মহিলাদের জন্য ঘরের বারান্দা, আঙ্গিনা বা ছাদে সালাত আদায় করার বিধান

প্রশ্ন: মহিলাদের জন্য ঘরের বারান্দা, আঙ্গিনা বা ছাদে সালাত আদায় করা কি জায়েজ?
উত্তর:
মহিলাদের জন্য জন্য ঘরের নিভৃত স্থানে সালাত আদায় করা অধিক উত্তম। কেননা এ মর্মে বহু হাদিস বর্ণিত হয়েছে। যেমন:

◈ আব্দুল্লাহ রা. সূত্রে বর্ণিত। নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন,
صَلَاةُ الْمَرْأَةِ فِي بَيْتِهَا أَفْضَلُ مِنْ صَلَاتِهَا فِي حُجْرَتِهَا وَصَلَاتُهَا فِي مَخْدَعِهَا أَفْضَلُ مِنْ صَلَاتِهَا فِي بَيْتِهَا
“মহিলাদের জন্য ঘরের আঙ্গিনায় সালাত আদায়ের চাইতে তার গৃহে সালাত আদায় করা উত্তম। আর নারীদের জন্য গৃহের অন্য কোন স্থানে সালাত আদায়ের চাইতে তার গোপন কামরায় সালাত আদায় করা অধিক উত্তম।” [বায়হাকী ৯৩/১৩১, ইবনে খুযায়মা, ১৬৮৮, ১৬৯০, হাকিম ১/২০৯। ইমাম হাকিম বলেন, হাদিসটি বুখারী ও মুসলিমের শর্তে সহীহ। ইমাম যাহাবী তার সাথে একমত পোষণ করেছেন।]

◈ অন্য হাদিসে বর্ণিত হয়েছে, উম্মে হুমাইদ আস-সায়িদী রা. থেকে বর্ণিত, একবার তিনি রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের নিকট এসে আরজ করলেন, হে আল্লাহর রাসুল! আমি আপনার পিছনে সালাত আদায় করা উত্তম মনে করছি। নবী করীম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম উত্তরে বললেন,
قَدْ عَلِمْتُ أَنَّكِ تُحِبِّينَ الصَّلَاةَ مَعِي، وَصَلَاتُكِ فِي بَيْتِكِ خَيْرٌ لَكِ مِنْ صَلَاتِكِ فِي حُجْرَتِكِ، وَصَلَاتُكِ فِي حُجْرَتِكِ خَيْرٌ مِنْ صَلَاتِكِ فِي دَارِكِ، وَصَلَاتُكِ فِي دَارِكِ خَيْرٌ لَكِ مِنْ صَلَاتِكِ فِي مَسْجِدِ قَوْمِكِ، وَصَلَاتُكِ فِي مَسْجِدِ قَوْمِكِ خَيْرٌ لَكِ مِنْ صَلَاتِكِ فِي مَسْجِدِي، قَالَ: فَأَمَرَتْ فَبُنِيَ لَهَا مَسْجِدٌ فِي أَقْصَى شَيْءٍ مِنْ بَيْتِهَا وَأَظْلَمِهِ، فَكَانَتْ تُصَلِّي فِيهِ حَتَّى لَقِيَت اللهَ عَزَّ وَجَلَّ .

“আমি ভালো করেই জানি, তুমি আমার পিছনে সালাত আদায় করা উত্তম মনে করছ। কিন্তু তোমার জন্য তোমার একান্ত কামরায় আদায় করা অন্য কামরায় আদায় করার চেয়ে উত্তম। আর তোমার ঘরের কোনো কামরায় সালাত আদায় করা বাড়িতে (সামনের রুমে) আদায় করার চেয়ে উত্তম। আর তোমার বাড়িতে সালাত আদায় করা এলাকার মসজিদে আদায় করার চেয়ে উত্তম। আর তোমার এলাকার মসজিদে সালাত আদায় করা আমার পিছনে (মদিনার মসজিদে নব্বীতে) সালাত আদায় করার চেয়ে উত্তম।”

বর্ণনাকারী বলেন, এরপর ঐ মহিলা সাহাবির নির্দেশে তার ঘরের একেবারে ভেতরে অন্ধকার কুঠরিতে সালাতের জন্য জায়গা বানানো হয়। মৃত্যু পর্যন্ত তিনি সেখানেই সালাত আদায় করতে থাকেন। [মুসনাদে আহমদ ২৭০৯০, হাফেজ ইবনে হাজার রহ. ‘ফাতহুল বারী’ গ্রন্থে বলেন, এর সনদ হাসান। আরও দেখুন: আনীসুস সারী ফী তাখরীজি ফাতহিল বারী’ ৫/৩৭৮৪-৮৬]।

এ ছাড়াও এ বিষয়ে আরও একাধিক হাদিস রয়েছে।

তবে তবে বিশেষ প্রয়োজনবোধে ঘরের বাইরে যে কোনও পবিত্র স্থানে পড়া জায়েজ আছে। যেমন: ঘরের বারান্দা, আঙ্গিনা, ছাদ ইত্যাদি।
জাবির ইবনে আবদুল্লাহ রা. থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেন,
وَجُعِلَتْ لِيَ الأَرْضُ مَسْجِدًا وَطَهُورًا، وَأَيُّمَا رَجُلٍ مِنْ أُمَّتِي أَدْرَكَتْهُ الصَّلاَةُ فَلْيُصَلِّ
“সমস্ত জমিন আমার জন্য সালাত আদায়ের স্থান ও পবিত্রতা অর্জনের মাধ্যম করা হয়েছে। সুতরাং আমার উম্মতের যে কারও যেখানেই সালাতের ওয়াক্ত হয় (সেখানেই) যেন সালাত আদায় করে নেয়।” [সহিহ বুখারি,অধ্যায়: ৮/ সালাত]

যাহোক, জরুরি দরকারে ঘরের বাইরে সালাত আদায় করলে সতর্ক থাকতে হবে যেন, পরিপূর্ণ পর্দা রক্ষা করা হয়। শরিয়তের বিধান হল, কোনও পরপুরুষ দেখার সম্ভাবনা না থাকলে সালাতে মহিলাদের মুখমণ্ডল ও দু হাতের কব্জি খোলা জায়েজ আছে কিন্তু পরপুরুষে দৃষ্টি পড়ার সম্ভাবনা থাকলে এগুলোও ঢাকা জরুরি।

বাড়ির ছাদে সালাত আদায়ের ক্ষেত্রে কথা হল, আমাদের অজানা নয় যে, আমাদের দেশে মানুষ বিভিন্ন কারণে বাড়ির ছাদে ঘুরাঘুরি করার ব্যাপক প্রচলন আছে। (যদিও আরব দেশে এ দৃশ্য তেমন চোখে পড়ে না) আর ভবনগুলোও কাছাকাছি। তাই এমন পরিস্থিতিতে জরুরি দরকার ছাড়া মহিলাদের ছাদের উপর সালাত আদায় না করাই ভালো। তবে জরুরি দরকার বোধে জায়েজ হলেও সতর্কতার স্বার্থে সালাতের জায়গাটা পর্দা টাঙ্গিয়ে বা পার্টিশন ঘিরে দেয়া যেতে পারে। এতে পরপুরুষের দৃষ্টি থেকে রক্ষা পাওয়া সম্ভব। আল্লাহু আলাম।

❖❖❖❖❖❖❖❖❖❖❖❖❖❖❖
উত্তর প্রদানে:
আব্দুল্লাহিল হাদী বিন আব্দুল জলীল
দাঈ, জুবাইল দাওয়াহ সেন্টার, সৌদি আরব।।