কোরআন ও সহীহ সুন্নাহ ভিত্তিক প্রশ্নোত্তর প্রচার করাই হল এই ওয়েবসাইটের মূল উদ্দেশ্য।।

নামায সংক্রান্ত কতিপয় প্রশ্নের উত্তর

প্রশ্ন: নিম্নোক্ত প্রশ্নগুলোর উত্তর দিলে উপকৃত হবো ইনশাআল্লাহ।
১) নামাজে সুরা ফাতিহার পর আমি কি দুটি সুরা মিলাতে পারি?
২) দ্বিতীয় রাকাতে যদি না বসে উঠে যাই তাহলে করণীয় কি?
৩) দ্বিতীয় বা তৃতীয় রাকাতে যদি সুরা মিলাতে ভুলে যাই তাহলে করণীয় কি? তা ফরজ হোক বা সুন্নত হোক।
৪) জামাতে শেষ রাকাতে যদি হাজির হই তাহলে কি জামাত ছেড়ে দিব? বা যদি এমন হয় যে, ফাতিহা পরে শেষ করতে পারলাম না তবে কি ঐ রাকআতটি আমাকে আবার পড়তে হবে?
৫ ) কবর এবং জাহান্নাম থেকে মুক্তি চেয়ে দুয়া টা কি দুয়া মাসুরার আগে পরব না পরে?
————————————
উত্তর:
১) নামাযে সূরা ফাতিহার পর ১টি, ২টি, ৩টি বরং যত খুশি সূরা মিলানো জায়েয।
২) তিন বা চার রাকআত বিশিষ্ট নামাযে ২য় রাকআতের পর তাশাহুদে বৈঠকে না বসে ৩য় রাকআতে দাঁড়িয়ে গেলে নামায অব্যাহত রাখবে এবং নামায শেষে সালাম ফিরানোর পূর্বে দুটি সাহু সেজদা দিবে।

৩) ২য় রাকআতে (চাই তা ফরজ হোক বা সুন্নত হোক) সূরা ফাতিহার পরে অন্য সূরা মিলাতে ভুলে গেলে সালাতে কোন সমস্যা হবে না। এ জন্য সাহু সাজদা দেয়ার প্রয়োজন নাই। কেননা, সূরা মিলানো সুন্নত; ওয়াজিব বা রোকন নয়।
৩য় ও ৪র্থ রাকআতে সূরা ফাতিহার পরে অন্য সূরা মিলানো ঠিক নয়।

৪) আপনি যদি জামাআতের শেষ রাকআতে শরিক হয়ে কেবল রুকু ধরতে পারেন তাহলে সে রাকআতটি গণ্য হবে সূরা ফাতিহা পড়তে না পারলেও। অর্থাৎ উক্ত রাকআতটি কাযা করার প্রয়োজন নাই। (এ ব্যাপারে দ্বিমত থাকলেও অনেক আলেমের মতে এটি অধিক বিশুদ্ধ মত)

৫) কবর এবং জাহান্নাম থেকে মুক্তি চেয়ে দুয়াটি দুয়া মাসূরা তথা আল্লাহুম্মা ইন্নী যালামতু নাফসী যুলমান কাসীরা……এর পরে পড়বেন। আল্লাহ তাওফিক দান করুন। আমীন।
••••••••••••••••••••
উত্তর প্রদানে:
আব্দুল্লাহিল হাদী বিন আব্দুল জলীল মাদানী
দাঈ, জুবাইল দাওয়াহ এন্ড গাইডেন্স সেন্টার, সৌদি আরব।।

Share This Post