কোরআন ও সহীহ সুন্নাহ ভিত্তিক প্রশ্নোত্তর প্রচার করাই হল এই ওয়েবসাইটের মূল উদ্দেশ্য।।

ইলেকট্রিক ব্যাট দ্বারা মশা-মাছি মারার বিধান কি?

প্রশ্ন: বর্তমানে বাজারে মশা-মাছি মারার যে ইলেকট্রিক ব্যাট পাওয়া যায় তা দিয়ে মশা-মাছি মারা কি বৈধ হবে?
– আগুন দ্বারা প্রাণী হত্যার বিধান কি?

উত্তর:
ইলেকট্রিক ব্যাট ইত্যাদির মাধ্যমে বৈদ্যুতিক শক দিয়ে মশা-মাছি মারা জায়েজ আছে ইনশাআল্লাহ।
হাদিসে এসেছে, আগুনের মাধ্যমে শাস্তি দিয়ে প্রাণী হত্যা করা হারাম। কিন্তু এ বৈদ্যুতিক মেশিন দ্বারা মশা মারা আর আগুন দিয়ে পুড়িয়ে মারা এক নয়। কারণ, বৈদ্যুতিক শককে আগুন বলা ঠিক নয়। প্রমাণ হল, এতে যদি একটুকরো কাপড় বা কাগজ রাখা হয় তাতে আগুন লাগবে না। বরং এই যন্ত্রটি মশা-মাছির জীবনীশক্তিকে শুষে নয়। সুতরাং এটা আগুন দিয়ে পোড়ানোর হুকুমের আওতায় আসবে না।

তবে যদি কখনও পরিস্থিতি এমন হয় যে, কোন কষ্টদায়ক প্রাণীকে আগুন ছাড়া মারার উপায় নাই তাহলে তাকে আগুন দিয়ে মারাও জায়েজ আছে। যেমন, হাদিসে বর্ণিত হয়েছে।
 আবু হুরাইরা (রাঃ) থেকে বর্ণিত:
‏ أَنَّ نَمْلَةً قَرَصَتْ نَبِيًّا مِنَ الأَنْبِيَاءِ فَأَمَرَ بِقَرْيَةِ النَّمْلِ فَأُحْرِقَتْ فَأَوْحَى اللَّهُ إِلَيْهِ أَفِي أَنْ قَرَصَتْكَ نَمْلَةٌ أَهْلَكْتَ أُمَّةً مِنَ الأُمَمِ تُسَبِّحُ ‏‏
“কোন এক নবীকে একটি পিঁপড়া কামড়ায়। তখন তার নির্দেশে আগুন দ্বারা পুরো পিঁপড়ার বস্তিকে জ্বালিয়ে দেয়া হয়। তখন আল্লাহ তার প্রতি প্রত্যাদেশ করলেন: ”তোমাকে তো মাত্র একটা পিঁপড়া কামড়েছিল, অথচ তুমি এমন একটা জাতীকে ধ্বংস করে দিলে- যারা (আমার) তাসবীহ পাঠ করতো!” (সহীহ বুখারী, কিতাবুল জিহাদ ওয়াস সায়র, হা/৩০১৯)
 আবু হুরায়রা (রাঃ) থেকে বর্ণিত। রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন,
“‏ نَزَلَ نَبِيٌّ مِنَ الأَنْبِيَاءِ تَحْتَ شَجَرَةٍ فَلَدَغَتْهُ نَمْلَةٌ، فَأَمَرَ بِجَهَازِهِ فَأُخْرِجَ مِنْ تَحْتِهَا، ثُمَّ أَمَرَ بِبَيْتِهَا فَأُحْرِقَ بِالنَّارِ، فَأَوْحَى اللَّهُ إِلَيْهِ فَهَلاَّ نَمْلَةً وَاحِدَةً ‏”‏‏
“কোন এক নাবী গাছের নীচে অবতরণ করেন। এরপর তাঁকে একটি পিঁপড়ায় কামড় দেয়। অত:পর তার নির্দেশক্রমে প্রয়োজনীয় আসবাবপত্র গাছের নীচ থেকে সরিয়ে নিয়ে পিপড়ার বাসা আগুন দিয়ে জ্বালিয়ে দেওয়া হল।

তখন আল্লাহ তাঁর প্রতি ওহী নাযিল করলেন, ‘তুমি একটি মাত্র পিপড়াকে (অপরাধী কে) কেন জ্বালালে না?’ (অর্থাৎ কেন তুমি অন্যান্য নিরপরাধ পিপীলিকাকে আগুন দ্বারা জ্বালালে?)
[ সহীহ বুখারী, হা/৩৩১৯, অধ্যায় সৃষ্টির সূচনা ]

এখান থেকে বুঝা যায়, যে প্রাণী মানুষকে কষ্ট দেয় তাকে শাস্তি দেয়া জায়েয রয়েছে এবং বিশেষ প্রয়োজনে আগুন দিয়ে মারাও জায়েয আছে-যদি তাকে অন্যভাবে হত্যা করা কঠিন হয়। অন্যথায় আগুন দিয়ে প্রাণী হত্যা করা হারাম। আল্লাহু আলাম।

▬▬▬▬▬▬▬▬

➤ প্রশ্ন: বাজারে মশা মারার জন্য র‌্যাকেটের মত এক ধরনের ইলেকট্রিক নেট পাওয়া যায়। এতে মশাটি পুড়ে যায়। তাছাড়া গ্লোব বা কয়েলের ধোঁয়ার মাধ্যমেও মশা মারা হয়। এভাবে ইলেকট্রিক শট ও ধোঁয়া দিয়ে মশা মারা যাবে কি ?

উত্তর : কোন প্রাণী যদি কষ্টদায়ক এবং ক্ষতিকর হয় তাহ’লে সেগুলোকে হত্যা করা যাবে। কিন্তু আগুনে পুড়িয়ে মারা যাবে না (বুখারী হা/৩০১৬, আবুদাঊদ হা/২৬৭৫)। আর ইলেকট্রিক নেট এবং কয়েলের দ্বারা মশা মারলে তাকে আগুনে পুড়ানো বুঝায় না। অতএব এভাবে মারতে কোন বাধা নেই।
(ফাতাওয়া লাজনা দায়েমা, ফৎওয়া নং-৫১৭৬, উসায়মীন, লিকাউল বাবিল মাফতূহ ৫৯/১২)।
▬▬▬▬▬▬▬▬
উত্তর প্রদানে:
আব্দুল্লাহিল হাদী বিন আব্দুল জলীল
দাঈ, জুবাইল দাওয়াহ এন্ড গাইডেন্স সেন্টার, ksa

Share This Post