হিজাব সহ কলেজ ড্রেস পরিধান কি শরিয়ত সম্মত

প্রশ্ন: আমি কলেজ ড্রেস আর হিজাব পরে কলেজে যাই। প্রশ্ন হল, যদি ভদ্রতা বজায় রেখে তা পরিধান করি এবং নরমাল হাঁটাচলা করি তাহলে এই ড্রেস পরার কারণে কি আমার গুনাহ হবে?
উত্তর: প্রথম কথা হল, ইসলাম নন মাহরাম পুরুষ-নারীর সহাবস্থান ও অবাধ মেলামেশা অনুমোদন করে না। [দেখুন সূরা আহযাব: ৫৩]
এমনকি আল্লাহর সবচেয়ে প্রিয় স্থান মসজিদেও নারী-পুরুষের সহাবস্থান ও সংমিশ্রণকে সমর্থন করা হয়নি। কারণ তা উভয়ের জন্যই বিশাল ফিতনার কারণ।
আল্লাহর এ বিধানের অনুপস্থিতির কারণে আমাদের সমাজে প্রতিনিয়ত কত নারী ধর্ষণ, ইভটিজিং ও‌ সম্ভ্রমহানির ঘটনা ঘটে এবং স্কুল-কলেজের ছাত্রী ও চাকরিজীবী নারীরা যৌন হয়রানির শিকার হয় তার কোন ইয়ত্তা নেই। এমন ব্যবস্থাপনার কারণে সামাজিক বিশৃঙ্খলা, পরিবার ধ্বংস, বিবাহ বিচ্ছেদ, এমনকি ইজ্জত বাঁচাতে আত্মহত্যার মতো কত ঘটনা ঘটে চলেছে। এসব বিষয় সচেতন ব্যক্তি মাত্রই অবগত। কিন্তু দুর্ভাগ্য হলেও সত্য যে, বর্তমানে স্কুল, কলেজ, সরকারি মাদরাসা, কোচিং সেন্টার, বিশ্ববিদ্যালয়, হাসপাতাল, ক্লিনিক, হোটেল-রেস্তোরাঁ, সরকারি বা সরকারি কর্পোরেট অফিস ইত্যাদি সর্বত্র নারী-পুরুষের অবাধ মেলামেশা (ফ্রি মিক্সিং) ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়েছে। অথচ এসব ক্ষেত্রে নারী-পুরুষ পৃথক অবস্থানে থেকে পড়াশুনা বা চাকরি করা আরো বেশি উপকারী, ফলপ্রসূ ও সাফল্যের কারণ হতো। যাহোক, যেসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সহশিক্ষা (ছেলে-মেয়ে একসাথে) চালু রয়েছে সেসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পড়াশোনা করা ইসলামে অনুমোদিত নয়। বরং নারী এবং পুরুষদের জন্য পৃথক পৃথক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হওয়া জরুরি।

দ্বিতীয়ত: আমাদের দেশের স্কুল-কলেজের ইউনিফর্ম বা ড্রেসগুলো ছাত্রীদেরকে আকর্ষণীয়ভাবে ফুটিয়ে তোলে। যা পুরুষদের জন্য, বিশেষ করে স্কুল-কলেজের উঠতি বয়সের যুবককের জন্য নিঃসন্দেহে বড় ফিতনার কারণ-যদিও একজন ছাত্রী উক্ত ড্রেস পরিধান করে মুখমণ্ডল ও মাথা ঢেকে রাখে।
সুতরাং যুবতি মেয়েদের জন্য শুধু স্কুল বা কলেজ ড্রেস পরিধান করে স্কুল বা কলেজে যাওয়া বৈধ নয়-যদিও মাথায় হিজাব পরিধান করা হয়। বরং তার উপরে অবশ্যই বোরকা পরিধান করতে হবে (মুখমণ্ডল ঢাকা সহ)।
কারণ আল্লাহ তাআলা নারীদেরকে হিজাব পরিধানের নির্দেশ প্রদানের পাশাপাশি তাদেরকে পরপুরুষের সামনে তাদের রূপ-সৌন্দর্য (শরীর ও পোশাকের সৌন্দর্য, অলঙ্কার ইত্যাদি) প্রকাশ না করার নির্দেশ দিয়েছেন। [দেখুন: সূরা নূর: ৩১] অথচ এই কলেজ ড্রেস/ইউনিফর্মগুলো আলাদা একটা সৌন্দর্য। সে কারণে পর পুরুষের সামনে এমন সৌন্দর্য মণ্ডিত ও আকর্ষণীয় পোশাক পরা বৈধ নয়। যেভাবে বিভিন্ন রংবেরঙের কারুকার্য খচিত, টাইট-ফিট এবং দৃষ্টি আকর্ষণকারী ফ্যাশনেবল বোরকা পরিধান করাকে আলেমগণ হারাম বলেছেন। কিন্তু তারপরও বলব, হিজাব সহ কলেজ ড্রেস পরিধান করা পর্দাহীনতা থেকে তুলনামূলক কম গুনাহের। আল্লাহ আমাদেরকে সব ধরনের ফিতনা থেকে হেফাজত করুন। আমিন।

▬▬▬▬✿◈✿▬▬▬▬
উত্তর প্রদানে:
আব্দুল্লাহিল হাদী বিন আব্দুল জলীল।
দাঈ, জুবাইল দাওয়াহ সেন্টার, সৌদি আরব।

Share On Social Media