কোরআন ও সহীহ সুন্নাহ ভিত্তিক প্রশ্নোত্তর প্রচার করাই হল এই ওয়েবসাইটের মূল উদ্দেশ্য।।

সরকারী ভূমি অফিসে চাকুরী করার বিধান কি যদি সুদ সহ বকেয়া কর আদায় করতে হয়

প্রশ্ন: আমার চাকরিটা সরকারি ভূমি অফিসে। জানি, ঘুষ ও দুর্নীতি হারাম কিন্তু ভূমি উন্নয়ন কর আদায়ে বকেয়া থাকলে সুদসহ আদায় করতে হয়। এটা সরকারী আইন।
ইসলামের দৃষ্টিতে এ চাকুরীর বিধান কি? ইদানীং মনে খুব অশান্তি বোধ করি এটার জন্য। Economically needy থাকার কারণে ছাড়তেও পারছি না। সঠিক উপদেশ একান্ত কাম্য।

উত্তর:

যদি আপনাকে ভূমি উন্নয়নের বকেয়া কর আদায়ের সময় সুদ সহ উঠাতে হয়। তাহলে সেই চাকরি করা আপনার জন্য বৈধ নয়। কেননা এতে সুদের মত হারাম কাজে সরকারকে সহযোগিতা করা হয়। অথচ সুদ হারাম এবং ভয়াবহ কবিরা গুনাহ।
আল্লাহ তাআলা বলেন:
يَا أَيُّهَا الَّذِينَ آمَنُوا اتَّقُوا اللَّـهَ وَذَرُوا مَا بَقِيَ مِنَ الرِّبَا إِن كُنتُم مُّؤْمِنِينَ- فَإِن لَّمْ تَفْعَلُوا فَأْذَنُوا بِحَرْبٍ مِّنَ اللَّـهِ وَرَسُولِهِ ۖ وَإِن تُبْتُمْ فَلَكُمْ رُءُوسُ أَمْوَالِكُمْ لَا تَظْلِمُونَ وَلَا تُظْلَمُونَ
“হে ইমানদারগণ, তোমরা আল্লাহকে ভয় কর এবং সুদের যে সমস্ত আছে, তা পরিত্যাগ কর, যদি তোমরা ইমানদার হয়ে থাক। অত:পর যদি তোমরা পরিত্যাগ না কর, তবে আল্লাহ ও তাঁর রসূলের সাথে যুদ্ধ করতে প্রস্তুত হয়ে যাও। কিন্তু যদি তোমরা তওবা কর, তবে তোমরা নিজের মূলধন পেয়ে যাবে। তোমরা কারও প্রতি অত্যাচার করো না এবং কেউ তোমাদের প্রতি অত্যাচার করবে না।” (সূরা বাকারা: ২৭৮-২৭৯)
এ ছাড়া রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সুদের সম্পৃক্ত চার প্রকারের লোককে অভিসম্পাত করেছেন। জাবের রা. হতে বর্ণিত,
أنه لعن آكل الربا وموكله وكاتبه وشاهديه، وقال: هم سواء
“সুদ গ্রহীতা, সুদ দাতা, সুদের লেখক এবং সাক্ষীদ্বয়কে রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম অভিসম্পাত করেছেন এবং বলেছেন, তারা সকলেই সমান (গুনাহগার)।” (সহীহ মুসলিম, হাদিস নং ১৯৯৫, শামেলা)

আর ইসলামে হারাম কাজে সহযোগিতা করা নিষেধ। আল্লাহ তায়ালা বলেছেন:
وَلَا تَعَاوَنُوا عَلَى الْإِثْمِ وَالْعُدْوَانِ

“পাপ ও সীমালঙ্ঘনের ব্যাপারে একে অন্যের সহায়তা করো না।” (সূরা মায়িদাহ: ২)

সুতরাং যথাসাধ্য দ্রুত এই চাকরি থেকে বের হয়ে আসা উচিৎ।

🌀 তবে যদি বিকল্প জীবন-জীবিকার বিকল্প ব্যবস্থা না থাকে তাহলে একান্ত অপারগ অবস্থায় উক্ত চাকরি করা যাবে।
আল্লাহ তাআলা বলেন:
لَا يُكَلِّفُ اللَّـهُ نَفْسًا إِلَّا وُسْعَهَا
“আল্লাহ কারো উপর তার সাধ্যাতীত কোন কাজের দায়িত্ব চাপিয়ে দেন না।” (সূরা বাকারা: ২৮৬)
তিনি আরও বলেন:
فَاتَّقُوا اللَّهَ مَا اسْتَطَعْتُمْ
“অতএব, তোমরা সাধ্যানুযায়ী আল্লাহকে ভয় কর।” (সূরা তাগাবুন: ১৬)

তবে মনে এই গুনাহের প্রতি ঘৃণা বোধ জাগ্রত রাখতে হবে এবং উক্ত চাকরি ছেড়ে বিকল্প হালাল উপার্জনের চেষ্টা চালিয়ে যেতে হবে এবং এ জন্য আল্লাহর নিকট দুআ করতে হবে।
আল্লাহ তৌফিক দান করুক। আমিন।
▰▰▰▰🌀🌀🌀▰▰▰▰▰
উত্তর প্রদানে:
আব্দুল্লাহিল হাদী বিন আবদুল জলীল
দাঈ, জুবাইল দাওয়াহ এন্ড গাইডেন্স সেন্টার, সৌদি আরব।।

Share This Post