কোরআন ও সহীহ সুন্নাহ ভিত্তিক প্রশ্নোত্তর প্রচার করাই হল এই ওয়েবসাইটের মূল উদ্দেশ্য।।

সন্তান লাভের আশায় গাছ-গাছালি/ইউনানি, এলোপ্যাথি, হোমিও ইত্যাদি ঔষধ ব্যবহার করার বিধান

প্রশ্ন: আমার ভাই ও ভাবীর প্রায় ১৫ বছর হল বিয়ে হয়েছে। কিন্তু এখনো তাদের সন্তান হয়নি।
প্রশ্ন হল, যদি তারা সন্তান লাভের উদ্দেশ্যে গাছ-গাছালি (ইউনানি) বা অন্য কোন চিকিৎসা গ্রহণ করে তাহলে কি ইসলামের দৃষ্টিতে তা বৈধ হবে?
উত্তর:
আমরা দোয়া করি, আল্লাহ তা’আলা যেন আপনার ভাই ও ভাবীর কোলে একটি ফুটফুটে সন্তান দিয়ে তাদের কোলকে আলোকিত করেন। আমিন।
অতঃপর মনে রাখা আবশ্যক যে, সন্তান দেওয়া-না দেওয়ার ইখতিয়ার সম্পূর্ণ আল্লাহর হাতে। তিনি ইচ্ছে করলে কাউকে ছেলে দেন, কাউকে মেয়ে দেন, কাউকে ছেলে-মেয়ে উভয়টি দান করেন আবার কাউকে কিছুই দেন না।
সুতরাং যদি সন্তান না হয় তাহলে সবরের সাথে অপেক্ষার প্রহর গুনতে হবে। হয়ত আরও বিলম্বে আল্লাহ তাদের ইচ্ছা পূরণ করবেন।

যা হোক, তারা সন্তান লাভের আশায় আল্লাহর কাছে দোয়া করবে,বেশি বেশি ইস্তিগফার পাঠ করবে এবং যদি ইচ্ছে করে তাহলে আধুনিক যে সকল চিকিৎসা পত্র রয়েছে (এলোপ্যাথি, হোমিও, ইউনানি, কবিরাজি ইত্যাদি) সেগুলো ব্যবহার করতে পারে। এতে শরীর দৃষ্টিতে কোনও আপত্তি নেই ইনশাআল্লাহ।
তবে সন্তান লাভের আশায় মাজারে মাজারে ধরনা দেয়া, শরীরে বা ঘরে তাবিজ ঝুলিয়ে রাখা, পীরের দেয়া অদ্ভুত অজিফা পাঠ ইত্যাদি জায়েজ নয়।
আল্লাহ তাআলা তৌফিক দান করুন। আমিন।
▬▬▬▒▐▒▬▬▬
উত্তর প্রদানে:
আব্দুল্লাহিল হাদী বিন আব্দুল জলীল মাদানী
জুবাইল, সৌদি আরব

Share This Post