কোরআন ও সহীহ সুন্নাহ ভিত্তিক প্রশ্নোত্তর প্রচার করাই হল এই ওয়েবসাইটের মূল উদ্দেশ্য।।

লা-ইলা-হা ইল্লাল্লাহ’ এর সাথে ‘মুহাম্মাদুর রাসুলুল্লাহ’ বলা যাবে কি

প্রশ্ন: ‘লা-ইলা-হা ইল্লাল্লাহ’ এর সাথে ‘মুহাম্মাদুর রাসুলুল্লাহ’ বলা যাবে কি?
অর্থাৎ “লা-ইলা-হা ইল্লাল্লাহ; মুহাম্মাদুর রাসূলুল্লাহ” বলাটা কি সঠিক?
▬▬▬ ◈◉◈▬▬▬
উত্তর:
লা ইলা-হা ইল্লাল্লাহ; মুহাম্মাদুর রাসূলুল্লাহ “আল্লাহ ছাড়া সত্য কোন উপাস্য নাই; মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম আল্লাহ রাসূল” পাঠ করতে কোন আপত্তি নাই। শরিয়তগতভাবে এবং আরবি ভাষা, ব্যাকরণ ও অর্থের দিক দিয়ে এতে কোন সমস্যা নেই। 
কিন্তু দুর্ভাগ্য যে, বর্তমান যুগে একশ্রেণীর অতি পণ্ডিত জাহেল লোকেরা এভাবে বলাকে শিরক-বিদআত বলার মত দু:সাহস দেখায়-যা অত্যন্ত ধৃষ্টতা, অজ্ঞতা ও বাড়াবাড়ি। আল্লাহ মাফ করুন।

আমাদের জানা দরকার যে,
উক্ত কালিমায় মূলত: আলাদা আলাদা দুটি বাক্য রয়েছে। যথা:
ক. লা-ইলা-হা ইল্লাল্লাহ “আল্লাহ ছাড়া সত্য কোন উপাস্য নাই।”
খ. মুহাম্মাদুর রাসূলুল্লাহ “মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম আল্লাহর রাসূল।”
উক্ত বাক্য দ্বয়ের পূর্বে “আমি সাক্ষ্য দিচ্ছি” বা “আমি স্বীকৃতি দিচ্ছি” বা আমি ঘোষণা করছি, বা “আমি বিশ্বাস করি” এ জাতীয় বাক্য উহ্য থাকে। অর্থাৎ কেউ যখন এ কালিমা পাঠ করল তখন সে যেন এই কালিমার সাক্ষ্য দিল বা কালিমার মর্মবাণীকে স্বীকার করে নিল। আর ইসলামে প্রবেশের জন্য এই সাক্ষ্যবাণী বা স্বীকৃতি বাণী অন্তরে বিশ্বাসের পাশাপাশি মুখে উচ্চারণই যথেষ্ট।

আরবি ভাষা অনুযায়ী এই কালিমার শুরুতে কখনো ((আশহাদু-“আমি সাক্ষ্য দিচ্ছি”)) কথাটি উল্লেখ করা হয় আবার কখনো তা উহ্য থাকে।
সুতরাং “আশহাদু/শাহাদাত” সহকারে বলা যেমন জায়েয; আশহাদু/শাহদাহ উহ্য করেও বলা জায়েয আছে।
যেমন, আশহাদু উল্লেখ করে বললে এভাবে বলতে হবে:
“আশহাদু আন লা ইলাহা ইল্লাহ ওয়া আন্না মুহাম্মাদার রাসুলুল্লাহ” 
অর্থ” “আমি সাক্ষ্য দিচ্ছি যে, আল্লাহ ছাড়া সত্য কোন উপাস্য নাই এবং মুহম্মদ আল্লাহর রাসূল।”

আর “আশহাদু” উল্লেখ ছাড়া বললে এভাবে বলতে হবে:
লা ইলাহা ইল্লাল্লাহ; মুহাম্মাদুর রাসূলুল্লাহ-আল্লাহ ছাড়া সত্য কোন উপাস্য নাই; মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম আল্লাহর রাসূল। এখানে শুরুতে শাহাদাত/স্বাক্ষ্যবাণী উল্লেখিত না হলেও অন্তরে তা উহ্য আছে। 
সুতরাং কালিমার শুরুতে শাহাদাত বা স্বাক্ষ্যবাণী উল্লেখ করা হোক অথবা না হোক উভয়টি সঠিক।

উল্লেখ্য যে, কুরআনে এ কালিমার দুটি অংশ দুটি আয়াতে বর্ণিত হয়েছে। যথা:

🔰 ১ম অংশ:
فَاعْلَمْ أَنَّهُ لَا إِلَٰهَ إِلَّا اللهُ
“অত:এব তুমি জেনে নাও যে, “লা ইলাহা ইল্লাহ”-আল্লাহ ছাড়া সত্য কোন উপাস্য নাই।” (সূরা মুহাম্মদ; ১৯)

🔰 ২য় অংশ: مُّحَمَّدٌ رَّ‌سُولُ اللَّهِ ۚ وَالَّذِينَ مَعَهُ أَشِدَّاءُ عَلَى الْكُفَّارِ‌ رُ‌حَمَاءُ بَيْنَهُمْ
مُّحَمَّدٌ رَّ‌سُولُ اللَّهِ ”মুহাম্মদ আল্লাহর রাসূল এবং যারা তার সাথে রয়েছে…..। (সূরা ফাতহ: ২৯)

এ বিষয়ে বিস্তারিত গবেষণা করেছেন শাইখ আকরামুয যামান মাদানি (হাফিযাহুল্লা)
তার গবেষণা মূলক লেখাটি পড়ুন এখান থেকে:
https://goo.gl/CeXUey
▬▬▬ ◈◉◈▬▬▬
উত্তর প্রদানে:
Abdullahil Hadi 
গ্রাজুয়েশন, মদিনা ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় (আল হাদিস এন্ড ইসলামী স্টাডিজ)
দাঈ, জুবাইল দাওয়াহ সেন্টার, KSA

Share This Post