কোরআন ও সহীহ সুন্নাহ ভিত্তিক প্রশ্নোত্তর প্রচার করাই হল এই ওয়েবসাইটের মূল উদ্দেশ্য।।

মিসওয়াক করে সালাত আদায় করলে ৭০গুন সাওয়াব বেশি হয় এটা কি সহিহ

প্রশ্ন: “মিসওয়াক করে সালাত আদায় করলে ৭০গুন সাওয়াব বেশি হয়” এটা কি সহিহ?

উত্তর:
ওযুর পূর্বে বা নামাজের পূর্বে মিসওয়াক করার ব্যাপারে একাধিক সহিহ হাদিস বর্ণিত হয়েছে।
✪ রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম ইরশাদ করেন,
لولا أن أشق على أمتي أو على الناس لأمرتهم بالسواك مع كل صلاة
“আমি যদি উম্মতের উপর (কষ্ট হবার) আশংকা না করতাম তাহলে প্রত্যেক নামাজেই মেসওয়াক করার আদেশ দিতাম।” (সহীহ বুখারী, হাদীস নং৮৮৭, সহীহ মুসলিম, হাদীস নং২৫২)

✪ মিসওয়াক করা মুখের পরিচ্ছন্নতা অর্জনের পাশাপাশি আল্লাহর সন্তুষ্টি অর্জনের মাধ্যম। যেমন: রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেন:,
السواك مطهرة للفم مرضاة للرب
“মিসওয়াক মুখের পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতার মাধ্যম ও আল্লাহর সন্তুষ্টির উপায়।” (সুনান নাসায়ী, ১/৫০, সহীহ ইববে হিব্বান হা/১০৬৭, সহীহ তারগীব ওয়াত তারহীব- ১/১৩৩)

✪ এছাড়াও হাদিসে বর্ণিত হয়েছে, রাসূল সাল্লাল্লাুহ আলাইহি ওয়া সাল্লাম বাহির থেকে বাড়িতে প্রবেশের পূর্বে এবং রাতে ঘুম থেকে জাগ্রত হওয়ার পর সর্বপ্রথম মিসওয়াক করতেন।

➤ কিন্তু صلاةٌ بسواكٍ أفضَلُ عند الله تعالى من سبعين صلاةً بغير سواك “মেসওয়াক করে সালাত আদায় আল্লাহর নিকট মিসওয়াক ছাড়া সালাতের চেয়ে ৭০গুন বেশি উত্তম বা সওয়াব বেশি হয়” মর্মে যে হাদিসটি বর্ণিত হয়েছে হয় তা বিজ্ঞ মুহাদ্দিসদের মতে যইফ বা দুর্বল। এ মর্মে কোনো হাদিস বিশুদ্ধ সনদে প্রমাণিত হয়নি।

উপরোক্ত হাদিসটির ব্যাপারে মুহাদ্দিসদের অভিমত:

● আল কামাল ইবনুল বলেন: এটি শায এবং যঈফ। গ্রন্থ: শরহু ফাতহিল কাদীর ২/৩৫৩।
● ইমাম সুয়ূতী বলেন, এ হাদিসটি যঈফ। গ্রন্থ: আল জামেউস সগির হা/৫০৮৩।
● শাইখ আলবানী বলেন, যঈফ। গ্রন্থ: যঈফুল জামে হা/৩৫১৯, যঈফ তারগীব হা/১৫০।
● এ ছাড়াও বায়হাকী, নওবী সহ বহু মুহাদ্দিস এটিকে যঈফ বা দুর্বল বলে আখ্যায়িত করেছেন।

যাহোক, আমাদের কর্তব্য, সুন্নত পালনার্থে যথাসাধ্য ওযুর পূর্বে বা সালাতের পূর্বে মিসওয়াক করা। তবে মিসওয়াক সহকারে সালাত আদায় করলে ৭০গুণ বেশি সওয়াব-এ বিশ্বাস পোষণ করা যাবে না। কেননা, এ মর্মে বর্ণিত হাদিসটি সহীহ সনদে প্রমাণিত হয় নি।

সেই সাথে ঘুম থেকে উঠে, বাহির থেকে বাড়িতে প্রবেশের পূর্বে বা যখনই মুখে দুর্গন্ধ অনুভূত হয় তখনই মিসওয়াক করার চেষ্টা করতে হবে। আল্লাহ তাওফিক দান করা।
আল্লাহু আলাম
▬▬▬🌐💠🌐▬▬▬
উত্তর প্রদানে:
শাইখ আব্দুল্লাহিল হাদী বিন আব্দুল জলীল
দাঈ, জুবাইল দাওয়াহ সেন্টার, সৌদি আরব।

Share This Post