মানুষের মধ্যে সর্ব প্রথম সৃষ্টি আদম আ. নাকি মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম

প্রশ্ন: আল্লাহ তাআলা সর্ব প্রথম আদম আ. কে সৃষ্টি করেছেন না কি নবী মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে? শুনেছি যে, আল্লাহ তাআলা সর্ব প্রথম নবী মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম-এর নুর সৃষ্টি করেছেন। সে নুর থেকে তিনি এই বিশ্বচরাচরের সব কিছু সৃষ্টি করেছেন। এ কথার বাস্তবতা কতটুকু?▬▬▬▬▬▬▬✿◈✿▬▬▬▬▬▬▬
উত্তর: মানব জাতির মধ্যে আল্লাহ তাআলা সর্বপ্রথম আদম আ. কে সৃষ্টি করেছেন। এরপর পৃথিবীতে যত মানুষের আবির্ভাব ঘটেছে ও ঘটবে তারা সকলে আদম ও তাঁর স্ত্রী হাওয়া আ. এর মাধ্যমেই হয়েছে। আল্লাহ তাআলা বলেন,

يَا أَيُّهَا النَّاسُ اتَّقُوا رَبَّكُمُ الَّذِي خَلَقَكُم مِّن نَّفْسٍ وَاحِدَةٍ وَخَلَقَ مِنْهَا زَوْجَهَا وَبَثَّ مِنْهُمَا رِجَالًا كَثِيرًا وَنِسَاءً ۚ

“হে মানব সমাজ! তোমরা তোমাদের পালনকর্তাকে ভয় কর, যিনি তোমাদেরকে এক ব্যক্তি থেকে সৃষ্টি করেছেন এবং যিনি তার থেকে তার সঙ্গিনীকে সৃষ্টি করেছেন; আর বিস্তার করেছেন তাদের দু’জন থেকে অগণিত পুরুষ ও নারী।” [সূরা নিসা: ১]

মানব জাতির এ ধারা পরম্পরায় রসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম ৫৭০/৬৭১ খৃষ্টাব্দে মক্কার কুরাইশ বংশে পিতা আব্দুল্লাহ ও মা আমিনার মাধ্যমে দুনিয়ার বুকে আগমন করেছেন।

❑ রসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম-এর নুর আল্লাহ প্রথম সৃষ্টি হওয়ার হাদিস জাল ও ভিত্তিহীন:

আল্লাহ তাআলা সর্বপ্রথম মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম এর নুর সৃষ্টি করেছেন আর তার নুর থেকে তামাম জাহান সৃষ্টি করেছেন, আদম আ. কে সৃষ্টি করার পর তিনি আকাশের দিকে তাকিয়ে একটা নুর দেখতে পেলেন আর সে নুর হল, মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম ইত্যাদি। এ ধরণের যত কথা আমাদের সমাজে লোকমুখে প্রচলিত সবই ভিত্তিহীন ও ভ্রান্ত কথা। এ সব কথায় বিশ্বাস করা বৈধ নয়।

◈ যারা বলে যে, আল্লাহর নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম-এর নুর থেকে বিশ্ব ভুবন সৃষ্টি হয়েছে তাদের প্রতি প্রশ্ন:

তাঁদের এই কথার ফলাফল অনুযায়ী পৃথিবীর সবকিছু নুরে মুহাম্মদি দ্বারা তৈরি। তাহলে আল্লাহর শত্রু ফেরাউন, নমরূদ, হামান, আবু জাহেল, আবু লাহাব, জেনাকারি এবং জেনাকারিনী, মদ্যপান কারী এবং মদ, জুয়াড়ি এবং জুয়া, মূর্তি এবং মন্দির, জাহান্নাম এবং জাহান্নামি, শুকর, কুকুর, ইঁদুর, বিড়াল ইত্যাদি সবই কি নুরে মুহাম্মদি হতে তৈরি?! নাউযু বিল্লাহ! ‌এটাই কি আপনাদের দৃষ্টিতে নবীর মর্যাদা এবং নবীর মহব্বত?! বরং এই বর্ণনা অনুযায়ী তো এর থেকেও জঘন্য আকিদা প্রমাণ হয়। তা হল, এ সবও আল্লাহর নুর! কারণ নুরে মুহাম্মদি হচ্ছে, প্রকৃত পক্ষে আল্লাহর নুর যা দ্বারা এসব কিছু তৈরি হয়েছে। এটা কোন ধরণের আকিদা?!

◈ যারা বলে যে, আল্লাহ তাআলা সর্ব প্রথম আল্লাহর নবী মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম-এর নুর সৃষ্টি করেছেন তাদের এ কথা নিম্নোক্ত সহিহ হাদিস পরিপন্থী:

রসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেন,

” إن أول شيء خلقه الله تعالى القلم وأمره أن يكتب كل شيء يكون
‘‘আল্লাহ তাআলা সর্বপ্রথম যে জিনিস সৃষ্টি করেন, তা হল কলম। তার পর কলমকে লিখতে আদেশ করেন যা কিছু (ভবিষ্যতে) হবে।”

হাদিসটিকে ইবনে আসেম আস্ সুন্নাহ গ্রন্থে (১০৮), আল আওয়ায়েল্ গ্রন্থে (৩), আবু ইয়ালা তার মুসনাদ গ্রন্থে (১/ ১২৬), বায়হাকি সুনান আল কুবরাতে (৯/৩) এবং আল্ আসমা ওয়াস সিফাত গ্রন্থে (২৭১)এ বর্ণনা করেন। [দেখুন সিলসিলা সহীহাহ, প্রথম খণ্ড হা/১৩৩]

শাইখ আলবানি, এ হাদিসের ব্যাপারে মন্তব্য করতে গিয়ে বলেন,

وفي الحديث إشارة إلى ما يتناقله الناس حتى صار ذلك عقيدة راسخة في قلوب كثيرة
منهم وهو أن النور المحمدي هو أول ما خلق الله تبارك وتعالى. وليس
لذلك

“এ হাদিসে এই ইঙ্গিত রয়েছে যে, লোকজন যে বিষয়টি নিজেদের মধ্যে আলোচনা-পর্যালোচনা করে থাকে এমনকি যেটা অনেক মানুষের অন্তরে শক্ত বিশ্বাসে পরিণত হয়েছে যে, নুরে মুহাম্মদি (মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম-এর নুর) হল, আল্লাহর সর্বপ্রথম সৃষ্টি। কিন্তু তা সঠিক নয়।” [ajurry]

এ হাদিস প্রমাণ করে যে, আল্লাহ তাআলা সর্ব প্রথম সৃষ্টি হল, কলম। কারো মতে আরশ আর কারো মতে পানি। এ ব্যাপারে উক্ত তিনটি মত পাওয়া যায়। যা হোক, আল্লাহর নবীর নুরকে প্রথম সৃষ্টি বলা হলে তা উক্ত হাদিসের বিপরীতে চলে যায়। আল্লাহু আলাম।
▬▬▬▬✿◈✿▬▬▬▬
উত্তর প্রদানে:
আব্দুল্লাহিল হাদী বিন আব্দুল জলীল।
দাঈ, জুবাইল দাওয়াহ এন্ড গাইডেন্স সেন্টার, সৌদি আরব।

Share On Social Media