কোরআন ও সহীহ সুন্নাহ ভিত্তিক প্রশ্নোত্তর প্রচার করাই হল এই ওয়েবসাইটের মূল উদ্দেশ্য।।

বিনা প্রয়োজনে ছবি তোলা প্রসঙ্গে জানতে চাই

প্রশ্ন: বিনা প্রয়োজনে ছবি তোলা প্রসঙ্গে জানতে চাই। বর্তমানে ফেসবুকে মেয়েরা হিজাব পরিধান করে মুখ খোলা রেখে ছবি দিচ্ছে, একে অপরকে ট্যাগ করছে এবং তাদের স্বামীরা তাদের ওয়াইফের ছবি পোস্ট করছে । বিনা প্রয়োজনে আসলে এগুলা করা আর কতটুকু যুক্তিসঙ্গত ?এটা কোন পর্যায়ে পড়বে? একটু জানাবেন।

উত্তর:
ইসলামের দৃষ্টিতে একান্ত প্রয়োজন ব্যতিরেকে ছবি তোলা জায়েয নেই। বিশেষ করে ফেসবুকে মহিলাদের হিজাব পরিধান করা অথচ মুখ খোলা কিংবা হিজাব ছাড়া বেপর্দা ছবি আপলোড করা আরও গর্হিত কাজ। কারণ, সন্দেহাতীতভাবে তা তার নিজের জন্য এবং অন্যের জন্য ফিতনা ও ক্ষতির কারণ।
আর কোনো স্বামী যদি তার স্ত্রীর বেপর্দা ছবি ফেসবুকে আপলোড, শেয়ার বা ট্যাগ দেয় তাহলে সে স্বামী দাইউস হিসেবে গণ্য হবে। আর হাদিসে বর্ণিত হয়েছে, দাইঊস ব্যক্তি জান্নাতে প্রবেশ করবে না। এটি ব্যক্তিত্ব ও আত্মমর্যাদাহীন কাজ ছাড়া অন্য কিছু নয়। এমনকি পর্দা পরানো অবস্থায়ও স্ত্রীর ছবি ফেসবুকে দিয়ে সর্বস্তরের মানুষের সামনে প্রদর্শণীয় বানানো নিতান্ত গর্হিত কাজ। আল্লাহ ক্ষমা করুন।

কোন মহিলা নিজে বা তার স্বামী ফেসবুকে হিজাব পরিধান করে পর্দা সহকারে মুখ খোলা অথবা বেপর্দা ছবি আপলোড দিয়ে থাকলে তাতে লাইক দেয়া বা তাতে কমেন্ট করাও গুনাহের শামিল। কেননা, এতে করে সেই ছবি অন্যদের কাছে ছড়িয়ে দেয়া হল এবং সে ব্যক্তিকে আরও উৎসাহিত করা হল। বরং উচিৎ হল, সে ব্যক্তিকে পার্সোনালভাবে নসিহত করা যেন স, তা মুছে ফেলে এবং ভবিষ্যতে আর না দেয়। আল্লাহ আলাম।
————————-
উত্তর প্রদানে:
আব্দুল্লাহিল হাদী বিন আব্দুল জলীল মদীনা
দাঈ, জুবাইল দাওয়াহ এন্ড গাইডেন্স সেন্টার, KSA.

Share This Post