ফেসবুকের মাধ্যমে দুআ চাওয়া

প্রশ্ন: আজকাল ফেসবুকে একটা জিনিস খুবেই চোখে পড়ে। যেমন: আমার জন্য দুআ করবেন, আমার বাবা-মা অসুস্থ। তাদের জন্য দুআ করবেন ইত্যাদি। এ ভাবে ফেসবুকে দুআ চাওয়া যাবে কি? এ সম্পর্কে ইসলাম কী বলে?

উত্তর:
ইসলামি শরিয়তে অন্যের নিকট দুআ চাওয়া এবং অন্যের জন্য দুআ করা উভয়টি জায়েজ। সুতরাং সরাসরি হোক বা চিঠি, ইমেইল, কল, SMS, ফেসবুক, মেসেঞ্জার, হোয়াটসঅ্যাপ ইত্যাদি কোনও মাধ্যমে হোক-এতে কোন আপত্তি নেই ইনশাআল্লাহ। কেননা এসব আধুনিক মিডিয়াকে ব্যবহারের উদ্দেশ্য অনুযায়ী তার বিধান প্রযোজ্য হবে। হারাম কাজে ব্যবহার করলে হারাম আর হালাল কাজে ব্যবহার করলে হালাল।

সুতরাং কেউ যদি ফেসবুকে নিজের জন্য অথবা নিজের জীবিত বা মৃত বাবা, মা, স্ত্রী, সন্তান ইত্যাদির জন্য দুআ চায় আর লোকজন কমেন্টে দুআ করে ইনশাআল্লাহ তাহলে তাতে কোন সমস্যা নেই। আল্লাহ তাআলা কারও দুআ কবুল করলে উদ্দিষ্ট ব্যক্তি তা দ্বারা উপকৃত হবে ইনশাআল্লাহ।

তবে দুআ চাওয়ার ক্ষেত্রে সবচেয়ে উত্তম পন্থা হল, নিজে আল্লাহর কাছেে হৃদয়ের আকুতি সহকারে দুআ করা। এ ক্ষেত্রে দুআ কবুলের শর্তাবলী, আদব এবং দুআ কবুলের সম্ভাবনাময় সময় ও স্থানগুলোর প্রতি লক্ষ রাখা উচিত।

আর অন্যের নিকট দুআর ক্ষেত্রে সবচেয়ে উত্তম হল, পিতামাতা ও নেককার লোকদের নিকট দুআ চাওয়ার চেষ্টা করা। ফেসবুকের উন্মুক্ত ময়দানে ভালো-মন্দ, নেককার-পাপাচারী নির্বিশেষে সর্বসাধারণের নিকট দুআ চাওয়ার থেকে উত্তম হল, বাহ্যত যাদেরকে আমাদের সৎ ও পরহেজগার বলে মনে হয় তাদের কাছে দুআ চাওয়া। এতে দুআ কবুলের সম্ভাবনা বেশি থাকে ইনশাআল্লাহ।

الله أعلم
-আব্দুল্লাহিল হাদী বিন আব্দুল জলীল‎-