নাপাকি পড়ে শুকিয়ে গেছে এমন স্থানে জায়নামাজ বিছিয়ে সালাত আদায় করার বিধান

◐ প্রশ্ন: বাচ্চারা মাঝে মাঝে বাড়ির কার্পেটে প্রস্রাব করে। এ অবস্থায় সালাতের জন্য কার্পেটের উপর জায়নামাজ বিছানো হলে কি যথেষ্ট হবে?
উত্তর:
إذا وضع على الفراش الذي فيه بول سجادة وصلى عليها لا بأس، وإذا غسل الموضع الذي أصابه البول وصب عليه الماء حتى يكاثره تطهر المكان، وإذا وضع السجادة أو بساط طاهر على بسط نجسة كفى ذلك.
“যে কার্পেটে প্রস্রাব আছে তার উপর যদি সে জায়নামাজ বিছিয়ে সালাত আদায় করে তাহলে তাতে কোনও দোষ নেই।
যদি সে প্রস্রাব আক্রান্ত স্থানটি ধুয়ে ফেলে এবং তাতে বেশি করে পানি ঢালে তাহলে তা পবিত্র হয়ে যাবে। আর যদি নাপাক বিছানা (বা কার্পেট) এর উপর জায়নামাজ বা পবিত্র বিছানা বিছায় তাহলে তাই যথেষ্ট।”
(আল্লামা আব্দুল্লাহ বিন বায রা. এর ফতোয়া। উৎস: binbaz ডট অর্গ)
◐ আল্লামা উসাইমিন বলেন,
لا يحرم على الإنسان أن يضع سجادته على شئٍ نجس يابس ويصلي عليها، اللهم إلا أن تكون لهذا النجس رائحةٌ تؤذي الإنسان في صلاته فلا يصلي عليها
“যদি শুকনা নাপাক কোন কিছুর উপর মানুষ জায়নামাজ বিছিয়ে তাতে নামাজ আদায় করে তাহলে তা হারাম নয়। অবশ্য যদি নাপাকি থেকে এমন দুর্গন্ধ বের হয় যে, তাতে নামাজি ব্যক্তির কষ্ট হয় তাহলে সেখানে নামাজ আদায় করবে না।” [উৎস: binothaimeen ডট নেট]
◐ প্রশ্ন: শুকিয়ে যাওয়া পেশাবে কাপড় লাগলে কি কাপড় নাপাক হয়ে যায়?
উত্তর:
কাপড়ে বা অন্য কিছুতে পেশাব লেগে যদি তা শুকিয়ে যায় আর ঐ শুকনা কাপড়ের সাথে অন্য পবিত্র কাপড়ের স্পর্শ লাগে তাহলে তা নাপাক হবে না। কারণ এতে পবিত্র কাপড়টা উক্ত পেশাব শোষণ করে না বা তাতে পেশাব লাগে না।
তবে যদি পেশাব লেগে ভেজা থাকা অবস্থায় যদি তার সাথে অন্য পবিত্র শুকনো কাপড় লাগে তাহলে সেটা নাপাক হয়ে যাবে। কারণ তখন পবিত্র কাপড়টি পেশাব শোষণ করবে।
আল্লাহু আলাম।
▬▬▬▬◐◯◑▬▬▬▬▬
অনুবাদ: আব্দুল্লাহিল হাদী বিন আব্দুল জলীল।
দাঈ, জুবাইল দাওয়াহ সেন্টার, সৌদি আরব।