কোরআন ও সহীহ সুন্নাহ ভিত্তিক প্রশ্নোত্তর প্রচার করাই হল এই ওয়েবসাইটের মূল উদ্দেশ্য।।

দেবর চায় না তার ভাবি বাড়িতে নিকাব পড়ুক

প্রশ্ন: এক বোনের বিয়ে হয়েছে প্রায় দেড় বছর। তিনি শ্বশুর বাড়ি থাকেন। আলহামদুলিল্লাহ্‌ সম্পূর্ণ পর্দা maintain করেন। বাড়িতে নন মাহরামদের সামনেও নিকাব পরের। এখন সমস্যা হল,‌ তার দেবর কোনোভাবেই ঘরের মধ্যে নিকাব মেনে নিচ্ছে না। সে ঘরে একসাথে খাওয়া ও বন্ধ করে দিয়েছে। এরকম আরও সমস্যা করছে। ঐ বোনের হাসবেন্ড আর না পেরে তার স্ত্রীকে দেবরের সামনে নিকাব খোলার অনুমতি দিয়েছে। কিন্তু ঐ বোনের কোনও ইচ্ছা নেই নিকাব খোলার। এই সমস্যার সমাধান কী হতে পারে?

উত্তর:
যে আল্লাহর বিধানকে সম্মান করে না তার কোন সম্মান নাই। আল্লাহর নাফরমানের কোন মূল্য নাই।
আল্লাহর পক্ষ থেকে ফরয ইবাদত যদি কারো অ পছন্দনীয় হয় তাহলে তার ঈমানই প্রশ্নের মুখে পড়ে যাবে।
আপনার ব্যাপারে যার চোখ রাঙ্গানোর অধিকার নাই তার চোখ রাঙ্গানোকে তওয়াক্কা করবেন না। নিজের স্বামীও যদি পর্দার ব্যাপারে শিথিলতা দেখাতে বলে তারপরও তা তার কথা শোনা যাবে না সেখানে দেবর! দেবরকে তো হাদিসে এমনিতেই মৃত্যু সমতুল্য বলা হয়েছে। অর্থাৎ তাদের ব্যাপারে আরও বেশি সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে।
আপনি সুষ্পষ্ট ভাষায় জানিয়ে দিন, পর্দা করা ফরজ ইবাদত। এটা কারো অপছন্দ হলে সে যেন সামনে না আসে।
শয়তানের অনুসারীদের সামনে আল্লাহর বান্দারা যদি কঠোর না হয় তাহলে তারা ভয় পাবে না।
দুআ করি, আল্লাহ আপনাকে হেফাজত করুন।
নিশ্চয় তিনি সর্বশ্রেষ্ঠ সাহায্যকারী।
——————-
আব্দুল্লাহিল হাদী বিন আব্দুল জলীল মাদানি।।