কোরআন ও সহীহ সুন্নাহ ভিত্তিক প্রশ্নোত্তর প্রচার করাই হল এই ওয়েবসাইটের মূল উদ্দেশ্য।।

দানকারী ব্যক্তি আল্লাহর উদ্দেশ্য দান করার পর অন্য কোন লোক তার দানের কথা প্রকাশ করলে বা লোকজন এতে তার প্রশংসা করলে দানকারীর দানের সওয়াবে কোন কমতি হবে না

প্রশ্ন: কেউ যদি দান করে বা কারো উপকার করে আর তার দানের কথা অন্য কেউ জেনে মানুষের কাছে বলে যে, অমুক ব্যক্তি মানুষকে অনেক দান করে… উপকার করে ইত্যাদি। তাহলে এতে কি দানকারী ব্যক্তির সওয়াবে কোন ঘাটতি হবে? যদিও দানকারী ব্যক্তির এতে রিয়া তথা লোকদেখানো বা মানুষের প্রশংসা পাওয়া উদ্দেশ্য ছিল না।

উত্তর:
দানকারী ব্যক্তি যদি কেবল আল্লাহর সন্তুষ্টির উদ্দেশ্যে (লোক দেখানো বা প্রশংসা পাওয়ার উদ্দেশ্যে নয়) দান করে থাকে তাহলে তিনি পূর্ণ সওয়াবের অধিকারী হবেন ইনশাআল্লাহ।
দান করার পর যদি কোন লোক তার দানের কথা অন্যের কাছে বলে অথবা সমাজের লোকজন তার দান বিষয়ে পরস্পরে আলোচনা করে, প্রশংসা করে এতে দানকারীর সওয়াবে কোন কমতি হবে না ইনশাআল্লাহ। বরং দুনিয়াতে থাকা অবস্থায় সে না চাইতেই যে প্রশংসা ও সম্মান পাচ্ছে এটি তার বাড়তি পাওনা এবং অগ্রিম সুসংবাদ। ইনশাআল্লাহ আখিরাতে তার জন্য বিশাল সম্মান ও পুরষ্কার অপেক্ষা করছেে। যেমন নিম্নোক্ত হাদিসটি:
عَنْ أَبِي ذَرٍّ، قَالَ قِيلَ لِرَسُولِ اللَّهِ صلى الله عليه وسلم أَرَأَيْتَ الرَّجُلَ يَعْمَلُ الْعَمَلَ مِنَ الْخَيْرِ وَيَحْمَدُهُ النَّاسُ عَلَيْهِ قَالَ تِلْكَ عَاجِلُ بُشْرَى الْمُؤْمِنِ ‏”
আবূ যার গিফারী (রাঃ) থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, রসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু ‘আলাইহি ওয়া সাল্লামকে জিজ্ঞাসা করা হল, ঐ লোক সম্পর্কে আপনার কি মতামত, যে নেক ‘আমল করে এবং লোকজন তা দেখে প্রশংসা করে? তিনি বললেন, এটা মু’মিনের জন্যে অগ্রিম সুসংবাদ। [সহীহ মুসলিম, অধ্যায়: সদ্ব্যবহার, আত্মীয়তার সম্পর্ক রক্ষা ও শিষ্টাচার। অনুচ্ছেদ: যদি সৎলোকের গুণ বর্ণনা করা হয় তবে তা সুসংবাদ তার জন্যে ক্ষতি নয়। হা/৬৪৮০- ইসলামী ফাউন্ডেশন]

উত্তর প্রদানে:
আব্দুল্লাহিল হাদী বিন আব্দুল জলীল মাদানী
দাঈ, জুবাইল দাওয়াহ, সৌদি আরব।।

Share This Post