কোরআন ও সহীহ সুন্নাহ ভিত্তিক প্রশ্নোত্তর প্রচার করাই হল এই ওয়েবসাইটের মূল উদ্দেশ্য।।

তালাক প্রাপ্তা মেয়ের অন্যত্র বিয়ে দিতে চাইলে বরপক্ষকে কি পূর্বের বিয়ে সম্পর্কে জানানো জরুরি?

প্রশ্ন: একটা মেয়ের আগে খোলা তালাক হয়েছিলো। বিয়েটা ছোট থাকতেই দেওয়া হয়েছিলো। সে বাবার বাড়িতেই থাকতো। কিন্তু কিছু সমস্যার কারণে তার খোলা তালাক নেয়া হয়। এখন মেয়েটির অন্য জায়গায় বিয়ে দিতে হলে কি বরপক্ষকে আগের কথাগুলো সব জানানো আবশ্যক?

উত্তর:
বিয়ে শুদ্ধ হওয়ার জন্য ‘মেয়েটির পূর্বে একবার বিয়ে হয়েছিলো’ এ কথা নিজ থেকে বর পক্ষকে জানানো জরুরি না হলেও ভবিষ্যৎ বিশৃঙ্খলা ও সমস্যা থেকে বাঁচার স্বার্থে বিষয়টি তাদের সাথে আলোচনা করা প্রয়োজন মনে করি- স্বচ্ছতা রক্ষা এবং সামাজিক দৃষ্টিকোণ থেকে। কেননা বিয়ের সময় যদি তা গোপন করা হয় এবং বরপক্ষকে বলা হয় যে, মেয়েটি কুমারী/অবিবাহিত কিন্তু বাস্তবে কুমারী/অবিবাহিত না হয় তাহলে তা প্রতারণা এবং মিথ্যা হিসেবে পরিগণিত হবে-যা এক দিকে গুনাহের কারণ হবে, অপর দিকে এ বিষয়কে কেন্দ্র করে পরবর্তীতে তাদের দাম্পত্য জীবনে সমস্যা সৃষ্টি হতে পারে।
সুতরাং ভবিষ্যতে বিষয়টি জানাজানি হওয়ার পর যেন এ নিয়ে সমস্যা তৈরি না হয় তাই অগ্রিম মেয়ের অবস্থা সম্পর্কে বরপক্ষকে জানানো ভালো।

উল্লেখ্য যে, ইসলামের বিধান হল, বিয়ের সময় বর যদি শর্ত করে যে, মেয়েকে কুমারী হতে হবে (যেমন: কাবিন নামায় যদি লেখা থাকে যে, “কনে কুমারী না কি বিবাহিত” তাহলে এটাই শর্ত হিসেবে পরিগণিত হবে।) কিন্তু বিয়ের পরে যদি প্রমাণিত হয় যে, মেয়েটি কুমারী নয় (বিবাহের মাধ্যমে হোক অথবা জিনার মাধ্যমে হোক) তাহলে শর্ত লঙ্ঘন হওয়ার কারণে স্বামীর অধিকার রয়েছে উক্ত স্ত্রীকে তালাক দেয়ার। আল্লাহু আলাম।
▬▬▬🔹💔🔹▬▬▬
উত্তর প্রদানে:
আব্দুল্লাহিল হাদী বিন আব্দুল জলীল,
দাঈ জুবাইল দাওয়াহ সেন্টার, সৌদি আরব

Share This Post