কাউকে কেবল ‘হালিম’ নামে সম্বোধন করা জায়েজ কি

প্রশ্ন: কাউকে কেবল ‘হালিম’ নামে সম্বোধন করা জায়েজ কি? না কি ‘আব্দুল হালিম’ বলা জরুরি অন্যথায় গুনাহ হবে?

উত্তর:

হালিম (Halim/haleem) শব্দের অর্থ: সহনশীল, ধৈর্যশীল, সহিষ্ণু, সুভদ্র, সুশীল, শিষ্ট ইত্যাদি।

এটি আল্লাহর একটি গুণবাচক নাম। কিন্তু এ নামটি বান্দার জন্যও প্রযোজ্য।
মূলত: এটি ঐ সকল নামের অন্তর্ভুক্ত যেগুলো আল্লাহর নাম হলেও বান্দার জন্যও প্রযোজ্য।
সুতরাং ছেলেকে ‘হালিম’ এবং মেয়েকে ‘হালিমা’ বলে সম্বোধন করতে কোনো আপত্তি নেই ইনশাআল্লাহ।

আল্লাহ তাআলা আল্লাহ নবী ইসমাইল আলাইহিস সালাম কে হালিম (সহনশীল) বলেছেন। আল্লাহ তাআলা বলেন:
رَبِّ هَبْ لِي مِنَ الصَّالِحِينَ فَبَشَّرْنَاهُ بِغُلَامٍ حَلِيمٍ
”(ইবরাহীম আ. দুআ করলেন:) ‘হে আমার পরওয়ারদেগার! আমাকে এক সুপুত্র দান কর।’ অত:পর আমি তাকে এক সহনশীল পুত্র (ইসমাইল) এর সুসংবাদ দান করলাম।” (সূরা আস সাফফাত: ১০০ ও ১০১)
আল্লাহ তাআলা নবী শুআইব আ. কে উদ্দেশ্য করে আল ‘হালীম’ শব্দ ব্যবহার করেছেন। যেমন আল্লাহ তআলা বলেন:
إِنَّكَ لَأَنتَ الْحَلِيمُ الرَّشِيدُ
“তুমি তো অত্যন্ত সহনশীল, সৎপথের পথিক।” (সূরা হুদ: ৮৭)

তবে কোনো পুরুষ ব্যক্তিকে ‘হালিম’ নাম ধরে ডাকা জায়েয হলেও ‘আব্দুল হালিম’ বলা অধিক উত্তম- এতে কোনো সন্দেহ নাই।

—————–
উত্তর প্রদানে:
আব্দুল্লাহিল হাদী বিন আব্দুল জলীল।