ইসলামের দৃষ্টিতে বেলুন, ফুল, কেক, মিষ্টান্ন দ্রব্য ও ডেকোরেশন সামগ্রীর ব্যবসা

প্রশ্ন: মনে করুন, আমি বেলুনের ব্যাবসা করি। আমার বেলুনের কারখানা ও দোকান আছে। আমি জন্মদিবস, বিবাহ বার্ষিকী, ঈদ, নিউ ইয়ার, ক্রিসমাস, বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা, সুদি ব্যাংকের উদ্বোধন ইত্যাদি উৎযাপন উপলক্ষে বেলুনের অর্ডার পেয়ে তা লাভজনকভাবে সরবরাহ করে থাকি। বিভিন্ন উদযাপনের বিষয়বস্তু আমাকে বেলুনের উপর লিখে দিতে হয়। যেমন:
“Happay New Year”,
“Happy Birthday”,
“Marry Christmas” ইত্যাদি লিখে দিতে হয়।
এ ক্ষেত্রে আমার ব্যবসা কি হালাল? বিস্তারিত জানিয়ে উত্তর দিলে উপকৃত হব।

উত্তর:
ইসলামের মূলনীতি হলো, কোন ধরনের হারাম ও আল্লাহর নাফরমানি মূলক কাজে কোনোভাবে সাহায্য-সহযোগিতা করা হারাম। যেমন:
আল্লাহ তাআলা বলেন,
وَتَعَاوَنُوا عَلَى الْبِرِّ وَالتَّقْوَىٰ ۖ وَلَا تَعَاوَنُوا عَلَى الْإِثْمِ وَالْعُدْوَانِ ۚ وَاتَّقُوا اللَّـهَ ۖ إِنَّ اللَّـهَ شَدِيدُ الْعِقَابِ
“আর তোমা সৎকর্ম ও আল্লাহ ভীতিতে একে অন্যের সহায়তা কর। পাপ ও সীমালঙ্ঘনের ব্যাপারে একে অন্যের সহায়তা করো না। আর আল্লাহকে ভয় কর। নিশ্চয় আল্লাহ তাআলা কঠোর শাস্তি দাতা।” [সূরা মায়িদা: ২]

সুতরাং আপনি যদি নিশ্চিত ভাবে জানতে পারেন বা মনের প্রবল ধারণার উপরে ভিত্তি করে বুঝতে পারেন যে, আপনার নিকট থেকে পণ্য ও মালামাল ক্রয় করে তা হারাম কাজে ব্যবহার করা হবে তাহলে তা বিক্রয় করা বৈধ নয়। কেননা তা প্রকারান্তরে হারাম কাজে সহায়তার শামিল।

অতএব যেসব উৎসব ও অনুষ্ঠান আদতেই ইসলাম সমর্থন করে না অথবা সেখানে হারাম ও আল্লাহর নাফরমানি মুলক কার্যক্রম সংঘটিত হয় সেসব ক্ষেত্রে কোনভাবেই সাহায্য সহযোগিতা করা জায়েজ নেই ‌

যেমন: জন্মদিবস, বিবাহ বার্ষিকী, নিউ ইয়ার/নববর্ষ, ক্রিসমাস, পূজা, দেওয়ালি, ভ্যালেন্টাইন ডে ইত্যাদি-
অপসংস্কৃতি ও কা ফি র-মু শ রি ক দের উৎসব কেন্দ্রিক অনুষ্ঠানাদি। অনুরূপভাবে সুদি ব্যাংক, মদের বার, সিনেমা ও থিয়েটার হল ইত্যাদি উদ্বোধন।

এসব হারাম অনুষ্ঠানাদি সাজানোর উদ্দেশ্যে বেলুন, ফুল, রঙ্গিন কাগজ, ফেস্টুন, ব্যানার ইত্যাদি অথবা অনুষ্ঠানে মানুষকে খাওয়ানোর উদ্দেশ্যে চকলেট, কেক, মিষ্টান্ন দ্রব্য ইত্যাদি কোনও কিছু বিক্রয় করা অথবা এ সব অনুষ্ঠান সফল করতে সহায়তা করে এমন সব ধরনের আসবাব-সামগ্রী-যেমন: লাইটিং, সাউন্ড সিস্টেম, ডেকারেশন ইত্যাদি বিক্রয় করা বা ভাড়া দেওয়া হারাম‌। কারণ এর মাধ্যমে প্রকারান্তরে ঐ সকল হারাম ও আল্লাহর অবাধ্যতা মুলক কর্মে সহযোগিতা করা হয়-যা ইসলামে নিষিদ্ধ।

স্বভাবতই এমন ব্যবসা থেকে উপার্জিত অর্থও হারাম।

অনুরূপভাবে বেলুন কোম্পানির জন্য এসব শরিয়ত বিরোধী অনুষ্ঠান উপলক্ষে বেলুনে মেরি ক্রিসমাস ডে, হ্যাপি নিউ ইয়ার, হ্যাপি বার্থডে…এসব বাক্য লিখে দেওয়াও জায়েজ নাই।

হ্যাঁ, যদি বৈধ অনুষ্ঠান হয় বা তাতে হারাম কোন কার্যক্রম সংগঠিত না হয় তাতে কোন সমস্যা নেই।

যেমন: বিয়ে বাড়ি বা বাসর ঘর সজ্জা, বৈধ কাজের জন্য অফিস বা হালাল ব্যবসা প্রতিষ্ঠান উদ্বোধন, ঈদ আনন্দ উৎসব, বাচ্চাদের খেলাধুলা ও গান-বাজনা মুক্ত সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ইত্যাদি।

এসব অনুষ্ঠান উপলক্ষে বেলুন, ফুল, কেক, চকলেট, মিষ্টি-মিষ্টান্ন বিক্রয় করা অথবা ডেকোরেশন সামগ্রী ইত্যাদি বিক্রয় বা ভাড়া প্রদান করায় কোন সমস্যা নেই ইনশাআল্লাহ।
আল্লাহু আলাম-আল্লাহ সবচেয়ে ভালো জানেন।
▬▬▬✪✪✪▬▬▬
উত্তর প্রদানে:
আব্দুল্লাহিল হাদী বিন আব্দুল জলিল।
(লিসান্স, মদিনা ইসলামিক বিশ্ববিদ্যালয়)
দাঈ, জুবাইল দাওয়া এন্ড গাইডেন্স সেন্টার, সৌদি আরব।।