কোরআন ও সহীহ সুন্নাহ ভিত্তিক প্রশ্নোত্তর প্রচার করাই হল এই ওয়েবসাইটের মূল উদ্দেশ্য।।

আমার কিছু অর্থ যা বাবা-মার খরচের উদ্দেশ্যে জমা রেখেছিলাম কিন্তু কোন এক নিকটাত্মীয় খুব বিপদে পড়ায় এখন যদি উক্ত টাকাটা তার প্রয়োজনে দান না করি

আমার কিছু অর্থ যা বাবা-মার খরচের উদ্দেশ্যে জমা রেখেছিলাম কিন্তু কোন এক নিকটাত্মীয় খুব বিপদে পড়ায় এখন যদি উক্ত টাকাটা তার প্রয়োজনে দান না করি তাহলে কি আমার গুনাহ হবে?
▬▬▬🔹🔹▬▬▬
প্রশ্ন: আমার কাছে কিছু মোহরের টাকা আছে। আমি চেয়েছিলাম, টাকাগুলো আমার মা-বাবার জন্য জমা রাখি। যেহেতু আমার ভাই এখনও ছোট। কিন্তু এখন জানতে পারলাম, আমার এক আত্মীয় অনেক বিপদে পড়েছে।এখন আমি যদি তাকে টাকা না দিয়ে মা-বাবার জন্য রাখি তাহলে কি গুনাহ হবে? আত্মীয়কে সাহায্য না করার কারণে গুনাহ হবে?
উত্তর:
আপনার মোহরের টাকা মা-বাবা’র প্রয়োজনে খরচ করার নিয়তে জমা রেখেছেন- এ জন্য দুআ করি, আল্লাহ তাআলা যেন, সৎ নিয়তের কারণে আপনাকে উত্তম বিনিময় দান করেন, আপনার ঈমান, আমল ও সম্পদে বরকত দান করেন। আমীন।
অত:পর, আপনি যদি উক্ত টাকাটা আপনার মা-বাবা ও ছোট ভাইয়ের প্রয়োজনে খরচ করার উদ্দেশ্যে জমা রাখেন তাহলে তাতে কোন সমস্যা নেই। অন্য মানুষের বিপদে তা দান না করলেও তাতে আপনার গুনাহ হবে না ইনশাআল্লাহ। কারণ নফল দানে সওয়াব রয়েছে কিন্তু দান করলে তাতে গুনাহ নেই। তবে আপনার যদি অতিরিক্ত সামর্থ্য থাকে মা ও ভায়ের জন্য খরচ করার পাশাপাশি উক্ত আত্মীয়কে সাহায্য করার তাহলে তাতে অধিক সওয়াব পাবেন ইনশাআল্লাহ। কিন্তু সামর্থ্য কম থাকলে আপনার সীমিত অর্থ মা ও ছোট ভাইয়ের জন্য জমা রাখতে পারেন। এতে আপনার গুনাহ হবে না ইনশাআল্লাহ।
কেননা, ইসলামের বিধান হল, আল্লাহ তাআলা বান্দাকে নিয়ত অনুযায়ী সওয়াব দান করে থাকেন এবং তিনি কাউকে তার সাধ্যেের অতিরিক্ত দায়িত্বের জন্য পাকড়াও করবেন না ইনশাআল্লাহ।

অবশ্য, যদি আপনার পিতামাতার আর্থিক স্বচ্ছলতা থাকে অর্থাৎ আপনি তাদেরকে টাকা না দিলেও তারা স্বচ্ছল অবস্থায় জীবন যাপন করতে পারবে তাহলে উক্ত টাকাটা আপনার বিপদগ্রস্থ আত্মীয়কে দান করা উত্তম।
▬▬▬🔹🔹▬▬▬
উত্তর প্রদানে:
আব্দুল্লাহিল হাদী বিন আব্দুল জলীল
দাঈ, জুবাইল দাওয়াহ সেন্টার, সৌদি আরব।।

Share This Post