কোরআন ও সহীহ সুন্নাহ ভিত্তিক প্রশ্নোত্তর প্রচার করাই হল এই ওয়েবসাইটের মূল উদ্দেশ্য।।

আযান ও ইকামত

আজানের সময় কি কথা বলা ঠিক?

প্রশ্ন: আজানের সময় কি কথা বলা ঠিক? ——————— উত্তর: আজান এর সময় উত্তম হল, মনোযোগ সহকারে আজান শোনা এবং আজানের জবাব দেয়া। কেননা এটি অত্যন্ত ফজিলত পূর্ণ কাজ। তবে যদি বিশেষ প্রয়োজনে কথা বলার দরকার হয় তাহলে এতে কোনও আপত্তি নেই। সুতরাং আজান চলাকালীন সময়ে দরকারি কথা বলা, হাঁচির জবাব দেওয়া, সালামের উত্তর দেওয়া বা …

আজানের সময় কি কথা বলা ঠিক? Read More »

আজানের সময় আজানের জবাব আগে না কি স্বামীর ডাকে সাড়া দেয়া আগে? সহবাসের সময় আজানের জবাব দেয়া যাবে কি?

প্রশ্ন: আজানের সময় আজানের জবাব দিচ্ছি। এমন সময় স্বামী ডাকল অথবা কল দিল। আমার জন্য উত্তম কোনটা হবে-আজানের জবাব দেওয়া নাকি তার কল ধরা বা ডাকে সাড়া দেয়া? আর সহবাসের সময় আজানের জবাব দেয়া যাবে কি? উত্তর: যদি মনে হয়, স্বামীর কল ধরতে বিলম্ব হলে তিনি রাগ করবেন বা মন খারাপ করবেন তাহলে আজানের জবাব …

আজানের সময় আজানের জবাব আগে না কি স্বামীর ডাকে সাড়া দেয়া আগে? সহবাসের সময় আজানের জবাব দেয়া যাবে কি? Read More »

মহিলাদের কি আযান ও ইকামত নেই?

প্রশ্ন: যেহেতু মহিলা এবং পুরুষদের মধ্যে কোনো পার্থক্য নাই সেহেতু পুরুষরা যেমন আযান-ইকামত দিয়ে নামাজ শুরু করে তেমনি মহিলারাও কি আযান ও ইকামত দিবে (একাকী পড়লেও)? কোনো কোনো আলেম বলেন যে, মহিলারা যদি আযান শুনতে না পায় তাহলে তারাও আযান দিবে পরে ইকামত দিয়ে নামাজ শুরু করবে (যদি আযান শুনতে পায় তাহলে শুধু ইকামত দিবে …

মহিলাদের কি আযান ও ইকামত নেই? Read More »

একাধিক মসজিদের আযান শোনা গেলে আযানের জবাব দেয়ার নিয়ম এবং আযান চলাকালীন সময় সালাত শুরু করার বিধান

▪ ক) প্রশ্ন: একাধিক মসজিদ থেকে আযানের আওয়াজ শোনা গেলে কোন মসজিদের আযানের জবাব দিবো? উত্তর: বিভিন্ন স্থান থেকে একাধিক আযানের আওয়াজ কানে ভেসে আসলে একজন মানুষ তার নিজস্ব মহল্লা বা এলাকার সব চেয়ে নিকটস্থ মসজিদের আযানের জবাব দিবে এবং সে উক্ত মসজিদে গিয়ে সালাত আদায় করবে। অন্যান্য দূর-দূরান্তের মসজিদের আযানের জবাব দেয়ার প্রয়োজন নাই যেগুলোতে …

একাধিক মসজিদের আযান শোনা গেলে আযানের জবাব দেয়ার নিয়ম এবং আযান চলাকালীন সময় সালাত শুরু করার বিধান Read More »

মুয়াজ্জিন কি আগে ইফতার করবেন নাকি আগে আযান দিবেন?

প্রশ্ন: মুয়াজ্জিন কখন ইফতার করবেন? আযানের আগে; না পরে? উত্তর: সমস্ত প্রশংসা আল্লাহর জন্য। রোযাদারের ইফতার করার ক্ষেত্রে বিধান হল- সূর্য অস্ত যেতে হবে এবং রাত শুরু হতে হবে। এর দলীল হচ্ছে- আল্লাহ তাআলার বাণী: ( وَكُلُوا وَاشْرَبُوا حَتَّى يَتَبَيَّنَ لَكُمُ الْخَيْطُ الأَبْيَضُ مِنَ الْخَيْطِ الأَسْوَدِ مِنَ الْفَجْرِ ثُمَّ أَتِمُّوا الصِّيَامَ إِلَى اللَّيْلِ ) [2 …

মুয়াজ্জিন কি আগে ইফতার করবেন নাকি আগে আযান দিবেন? Read More »