ইকামত সম্পর্কে বিস্তারিত

প্রশ্ন: ইকামত শব্দের অর্থ কি? ইকামত কিভাবে দিতে হয়? ইকামাতের জওয়াব দেওয়ার বিধান কি? ইকামত ও নামায শুরু করার মাঝে ব্যবধান কেমন হবে? ▬▬▬▬▬▬▬💠💠💠▬▬▬▬▬▬▬ উত্তর: ইকামতের আভিধানিক অর্থ: الإقامة শব্দটি أقام ক্রিয়া এর মূল ধাতু বা মাসদার। আরবিতে إقامة الشيء তখনই বলা হয়,যখন কোনো কিছু স্থির ও সোজা করা হয়। শরী‘আতের পরিভাষায় ইকামত: “নির্দিষ্ট যিকিরের … Read more

বিভিন্ন পরিস্থিতিতে আযানের শব্দ পরিবর্তন সংক্রান্ত কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্নের উত্তর

প্রশ্ন: মসজিদ ছাড়া অন্য স্থানে আযান, একাকী সালাতের জন্য, ক্বাযা সালাতের জন্য, তাহাজ্জুদ ও সেহ্‌রীর জন্য, সন্তান ভূমিষ্ঠ হলে, জিন-ভূতের ভয়ের জন্য, মহিলাদের জন্য, ঝড়-বৃষ্টির সময় আযানের শব্দ পরিবর্তন সংক্রান্ত কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্নের উত্তর। ▬▬▬▬▬▬▬💠💠💠▬▬▬▬▬▬▬ উত্তর: আযান অর্থ আহবান করা, ঘোষণা করা। পাঁচ ওয়াক্ত সালাতের জন্য নির্দিষ্ট সময়ে শরী‘আত সম্মত উপায়ে উচ্চৈঃস্বরে সালাতের ঘোষণা প্রদানকে … Read more

আযানের বিশেষ নিয়মাবলী ও আযানের জওয়াব

প্রশ্ন: আযানের বিশেষ নিয়মাবলী কি?আযানের জওয়াব দেয়ার হুকুম কি? আযানের জওয়াব দেওয়ার সুন্নাহ সম্মত পদ্ধতি কি? ▬▬▬▬▬▬▬▬▬❂▬▬▬▬▬▬▬▬ উত্তর: মহান আল্লাহ তায়ালার বড়ত্বের এ ধ্বনি প্রতিধ্বনি আযান প্রতিদিন পাঁচ ওয়াক্ত নামাজে উচ্চারণ করা হয়। যিনি আজান দেন তার মর্যাদাও আল্লাহ তায়ালার কাছে সবচেয়ে বেশি। কেয়ামতের ময়দানে মহা পুরস্কারে ভূষিত হবে মুয়াজ্জিন। তবে যারা আজানের জবাব দিবেন … Read more

একজন মুয়াযযিনের কী কী গুণাবলি ও বৈশিষ্ট্য থাকা আবশ্যক

প্রশ্ন: একজন মুয়াযযিনের কী কী গুণাবলি ও বৈশিষ্ট্য থাকা আবশ্যক? ▬▬▬▬▬▬▬💠💠💠▬▬▬▬▬▬▬ উত্তর: মুআযযিন হলেন সেই ব্যক্তি যিনি নামাজের সময় হলে জামাতে অংশগ্রহণের আহবান জানিয়ে মসজিদ থেকে উচ্চস্বরে আযান দিয়ে থাকেন। এছাড়া জামাতে নামাজ আদায়ের ক্ষেত্রে তিনিই ইক্বামাহ্‌ দিয়ে থাকেন। ইসলামী শরীয়তে একজন মুআযযিনের কী গুণাবলি ও বৈশিষ্ট্য থাকা আবশ্যক? তা সংক্ষেপে তুলে ধরা হলো: ▪️১। … Read more

আযান সম্পর্কে বিস্তারিত

প্রশ্ন: আযানের সংজ্ঞা কি? আযানের প্রারম্ভিক ইতিহাস ও ফজিলত কি? আযানের শব্দাবলী কয়টি ও কি কি? ▬▬▬▬▬▬▬💠💠💠▬▬▬▬▬▬▬ উত্তর: আযান অর্থ আহবান করা, ঘোষণা করা।পাঁচ ওয়াক্ত সালাতের জন্য নির্দিষ্ট সময়ে শরীআত সম্মত উপায়ে উচ্চৈঃস্বরে সালাতের ঘোষণা প্রদানকে আযান বলা হয়। ১ম হিজরী সনে আযানের প্রচলন হয়। (মির‘আত ২/৩৪৪-৩৪৫)। আযানের নাম এ জন্য আযান হয়েছে, যেহেতু মুয়াজ্জিন‎ … Read more

যেখানে আযান হয়না

প্রশ্ন: আমি এখন একটা অমুসলিম দেশে আছি।এখানে আযান হয়না। এখন আমি যদি মোবাইলের অ্যাপস টিভি রেডিওতে যে আযান হয় ওই আযান শুনে আযানের জবাব এবং শেষে দোয়া পড়ি সেটাকে কি আযান আর ইকামতের দোয়া হিসেবে গন্য করা যাবে? বিস্তারিত জানতে চাই। ▬▬▬▬▬▬▬💠💠💠▬▬▬▬▬▬▬ উত্তর: আযান অর্থ আহবান করা, ঘোষণা করা। পাঁচ ওয়াক্ত সালাতের জন্য নির্দিষ্ট সময়ে … Read more

শিশু সন্তানের কানে আযান দেয়া কি শরীয়ত সম্মত

প্রশ্ন: শিশু সন্তানের কানে আযান দেয়া কি শরীয়ত সম্মত? বিস্তারিত জানতে চাই। ▬▬▬▬▬▬▬▬💠💠💠▬▬▬▬▬▬▬▬ উত্তর: শিশু সন্তান ছেলে হোক আর মেয়ে হোক জন্মের সঙ্গে সঙ্গে সন্তান-সন্তুতির কানে আস্তে করে হালকা আওয়াজে আযান দেয়া উচিত।যেন পৃথিবীতে আগমনের পর সর্বপ্রথম শিশুর কানে মহান আল্লাহর পবিত্র নাম অর্থাৎ তাওহীদ ও রিসালাতের ঘোষণা তার কানে পৌঁছে দেওয়া হয়। ফলে নবজাতকের … Read more

কাজা সালাতে আজান ও ইকামতের বিধান

প্রশ্ন: “কাজা সালাতে ইকামতের প্রয়োজন নেই” একথা কি হাদিস সম্মত? দলিল সহ জানতে চাই। উত্তর: “কাজা সালাতে ইকামত এর প্রয়োজন নেই” এ কথা হাদিস সম্মত নয়। বরং একাধিক বিশুদ্ধ হাদিস থেকে প্রমাণিত যে, কাজা সালাতেও ইকামত দেওয়া সুন্নত। কোন সালাত যথাসময়ে পড়তে না পারলে অনতিবিলম্বে তা কাজা করতে হবে। এ ক্ষেত্রে সুন্নত হল, ইকামত দেওয়ার … Read more

সহবাসের সময় আজান হলে কী করণীয়?

প্রশ্ন: সহবাসের সময় আজান হলে কী করণীয়? উত্তর: স্ত্রী সহবাসের সময় আজান শুনলে স্বাভাবিকভাবেই নিজেদের প্রয়োজন পূরণ করবে। তবে এ সময় মুখে উচ্চারণ করে আজানের জবাব দেয়া সমীচীন নয়। ইমাম নওবি রহ. বলেন, ويكره للقاعد على قضاء الحاجة أن يذكر الله تعالى بشيء من الاذكار فلا يسبح ولا يهلل ولا يرد السلام ولا يشمت العاطس … Read more

আজানের জবাব: পদ্ধতি ও ফজিলত

প্রশ্ন: আজানের জবাব দেয়ার পদ্ধতি কি? আজান শুনে তার জবাব না দিলে কি তার নামাজ হবে না? উত্তর: আজানের জবাব দেয়া অত্যন্ত ফযিলত পূর্ণ আমল-যা আলেমদের সর্বসম্মতি মতে মুস্তাহাব। ইবনে কুদামা বলেন, “এটি মুস্তাহাব হওয়ার ব্যাপারে আহলুল ইলমদের মধ্যে কোনও দ্বিমত আছে বলে জানি না।” [আল মুগনি ১/৫৯১] ◍ এ বিষয়ে হাদিস হল, আবু সাঈদ … Read more

আজানের সময় দুনিয়াবি কথা বললে কালিমা নসিব হবে না। এ কথা কি সঠিক?

প্রশ্ন: “আজানের সময় কথা বললে মৃত্যুর আগে কালিমা নসিব হবে না।” এ হাদিস কি সহিহ? উত্তর: এটি ভিত্তিহীন কথা এবং হাদিসের নামে মিথ্যাচার। এমন কথা রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম এর দিকে সম্বন্ধ করা জায়েজ নাই। বরং সঠিক কথা হল, মুয়াজ্জিন যখন আজান দেয় তখন প্রয়োজনবোধে শ্রোতা কথা বলতে পারে। তবে বিন দরকারে অযথা কথা … Read more

ইসলামের আজানের গুরুত্ব কতটুকু?

প্রশ্ন: ইসলামের আজানের গুরুত্ব কতটুকু? রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম কখনো আজান দিয়েছিলেন কি? এ বিষয়ে প্রমাণ সহকারে জানতে চাই। উত্তর: নি:সন্দেহে আজান ইসলামের এক বিরাট নিদর্শন। কোনও এলাকা থেকে আজানের ধ্বনি ভেসে এলে প্রমাণিত হয়, সেখানে মুমিন-মুসলিমদের বসবাস রয়েছে। সেখানে ঈমানের চাষাবাদ এবং দীনের পরিচর্যা হয়। পক্ষান্তরে কোথাও আজানের ধ্বনি শোনা না গেলে প্রমাণিত … Read more

একমত দেয়ার সময় মুয়াজ্জিনের জন্য কি ঠিক ইমামের পেছনে থাকা আবশ্যক এবং ইমাম কি নিজেই একামত দিতে পারবেন

প্রশ্ন: সালাতের একমত দেয়ার সময় মুয়াজ্জিনের জন্য কি ইমামের ঠিক পেছনে থাকা আবশ্যক না কি তিনি কিছুটা ডানে-বামেও থেকেও একামত দিতে পারেন? আর ইমাম সাহেব নিজেও কি একামত দিতে পারবেন? উত্তর: ◍ ইমামের ঠিক পেছনে মুয়াজ্জিনের থাকার আবশ্যকতা সম্পর্কে কোন হাদিস সাব্যস্ত হয় নি। বরং হাদিসে এসেছে, রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেন, لِيَلِني مِنْكُمْ … Read more

ওজু ছাড়া আজান দেয়ার বিধান এবং ওজু ছাড়া আজান দিলে সংসারে দুর্ভিক্ষ নেমে আসে এ কথার সত্যতা

প্রশ্ন: ওজু ছাড়া কি মসজিদে আজান জায়েজ? আর ‘ওজু ছাড়া আজান দিলে সংসারে দুর্ভিক্ষ নেমে আসে’ কথাটা কতটুকু সত্য? উত্তর: নিম্নে এ দুটি প্রশ্নের উত্তর প্রদান করা হল: و بالله التوفيق ❑ ক) ওজু ছাড়া আজান দেয়া: ইসলামে আজান দেয়ার জন্য পবিত্রতা শর্ত করা হয় নি। সুতরাং ওজু ছাড়া আজান দেয়ায় কোন আপত্তি নাই। তবে … Read more

বাহারে শরিয়ত নামক কিতাবের হাওয়ালায় বলা হচ্ছে যে, ১১টি স্থানে আজান দেয়া মুস্তাহাব তা কতটুকু সঠিক

■ প্রশ্ন: বাহারে শরিয়ত নামক কিতাবের হাওয়ালায় বলা হচ্ছে যে, ১১টি স্থানে আজান দেয়া মুস্তাহাব। তা কতটুকু সঠিক? উত্তর: উক্ত ১১টি স্থানের অধিকাংশই দলিল বহির্ভূত কথা। যেমন: (১) (সন্তান ভূমিষ্ঠ হলে) সন্তানের কানে আজান। (এ ব্যাপারে বর্ণিত হাদিসটি সহিহ-জঈফ হওয়ার ব্যাপারে মুহাদ্দিসদের মাঝে বিতর্ক রয়েছে) (২) দুঃশ্চিন্তাগ্রস্থ ব্যক্তির নিকট আজান। (দলিল বহির্ভূত) (৩) মৃগী রোগীর … Read more

নাবালেগ শিশু আজান দিলে তা কি যথেষ্ট হবে

প্রশ্ন: নাবালেগ শিশু আজান দিলে তা কি যথেষ্ট হবে? উত্তর: যদি বুঝমান ও বিবেক-বুদ্ধি সম্পন্ন কোন বালক (যে বয়সে বাচ্চাদেরকে সালাতের আদেশ দেয়া হয়েছে। তা হল সাত বছর) আজান দেয় তাহলে তা যথেষ্ট হবে ইনশাআল্লাহ। এটি আলেমদের সর্বসম্মত অভিমত। সম্মনিত ফকিহগণ উল্লেখ করেছেন, আজানের শর্ত তিনটি। যথা: ১) মুসলিম হওয়া। ২) ছেলে/পুরুষ হওয়া। ৩) জ্ঞান-বুদ্ধি … Read more

সালাত পড়ার জন্য কি আজান হওয়া জরুরি

প্রশ্ন: সালাত পড়ার জন্য কি আজান হওয়া জরুরি? ▬▬▬◖◯◗▬▬▬ উত্তর: মূলত সালাত সময়ের সাথে সম্পৃক্ত; আজানের সাথে নয়। সুতরাং সালাতের সময় হওয়ার সাথে সাথে সালাত আদায় করলে তা শুদ্ধ হবে ইনশাআল্লাহ-যদিও কোন কারণে আজান দিতে কিছু বিলম্ব হয়। আল্লাহ তাআলা বলেন: إِنَّ الصَّلَاةَ كَانَتْ عَلَى الْمُؤْمِنِينَ كِتَابًا مَّوْقُوتًا “নিশ্চয় মুমিদের উপর ফরজ করা হয়েছে নির্দিষ্ট … Read more

আজানের সময় কি কথা বলা ঠিক?

প্রশ্ন: আজানের সময় কি কথা বলা ঠিক? ——————— উত্তর: আজান এর সময় উত্তম হল, মনোযোগ সহকারে আজান শোনা এবং আজানের জবাব দেয়া। কেননা এটি অত্যন্ত ফজিলত পূর্ণ কাজ। তবে যদি বিশেষ প্রয়োজনে কথা বলার দরকার হয় তাহলে এতে কোনও আপত্তি নেই। সুতরাং আজান চলাকালীন সময়ে দরকারি কথা বলা, হাঁচির জবাব দেওয়া, সালামের উত্তর দেওয়া বা … Read more

আজানের সময় আজানের জবাব আগে না কি স্বামীর ডাকে সাড়া দেয়া আগে? সহবাসের সময় আজানের জবাব দেয়া যাবে কি?

প্রশ্ন: আজানের সময় আজানের জবাব দিচ্ছি। এমন সময় স্বামী ডাকল অথবা কল দিল। আমার জন্য উত্তম কোনটা হবে-আজানের জবাব দেওয়া নাকি তার কল ধরা বা ডাকে সাড়া দেয়া? আর সহবাসের সময় আজানের জবাব দেয়া যাবে কি? উত্তর: যদি মনে হয়, স্বামীর কল ধরতে বিলম্ব হলে তিনি রাগ করবেন বা মন খারাপ করবেন তাহলে আজানের জবাব … Read more

মহিলাদের কি আযান ও ইকামত নেই?

প্রশ্ন: যেহেতু মহিলা এবং পুরুষদের মধ্যে কোনো পার্থক্য নাই সেহেতু পুরুষরা যেমন আযান-ইকামত দিয়ে নামাজ শুরু করে তেমনি মহিলারাও কি আযান ও ইকামত দিবে (একাকী পড়লেও)? কোনো কোনো আলেম বলেন যে, মহিলারা যদি আযান শুনতে না পায় তাহলে তারাও আযান দিবে পরে ইকামত দিয়ে নামাজ শুরু করবে (যদি আযান শুনতে পায় তাহলে শুধু ইকামত দিবে … Read more

একাধিক মসজিদের আযান শোনা গেলে আযানের জবাব দেয়ার নিয়ম এবং আযান চলাকালীন সময় সালাত শুরু করার বিধান

▪ ক) প্রশ্ন: একাধিক মসজিদ থেকে আযানের আওয়াজ শোনা গেলে কোন মসজিদের আযানের জবাব দিবো? উত্তর: বিভিন্ন স্থান থেকে একাধিক আযানের আওয়াজ কানে ভেসে আসলে একজন মানুষ তার নিজস্ব মহল্লা বা এলাকার সব চেয়ে নিকটস্থ মসজিদের আযানের জবাব দিবে এবং সে উক্ত মসজিদে গিয়ে সালাত আদায় করবে। অন্যান্য দূর-দূরান্তের মসজিদের আযানের জবাব দেয়ার প্রয়োজন নাই যেগুলোতে … Read more