কোরআন ও সহীহ সুন্নাহ ভিত্তিক প্রশ্নোত্তর প্রচার করাই হল এই ওয়েবসাইটের মূল উদ্দেশ্য।।

হায়েয বন্ধ হওয়ার পর ফরয গোসলের পূর্বে কি স্ত্রী সহবাস করা বৈধ?

উত্তর:
কোন ঈমানদার ব্যক্তির জন্য হায়েয বা ঋতুস্রাব বন্ধ হওয়ার পর গোসলের মাধ্যমে পূর্ণ পবিত্র হওয়া পর্যন্ত স্ত্রী সহবাসে লিপ্ত হওয়া বৈধ নয়। আল্লাহ তাআলা বলেন:

وَيَسْأَلُونَكَ عَنِ الْمَحِيضِ ۖ قُلْ هُوَ أَذًى فَاعْتَزِلُوا النِّسَاءَ فِي الْمَحِيضِ ۖ وَلَا تَقْرَبُوهُنَّ حَتَّىٰ يَطْهُرْنَ ۖ فَإِذَا تَطَهَّرْنَ فَأْتُوهُنَّ مِنْ حَيْثُ أَمَرَكُمُ اللَّـهُ ۚ
“আর তোমার কাছে জিজ্ঞেস করে হায়েয (ঋতুস্রাব) সম্পর্কে। বলে দাও, এটা অশুচি। সুতরাং তোমরা হায়েয অবস্থায় স্ত্রীগমন থেকে বিরত থাক। তখন পর্যন্ত তাদের নিকটবর্তী হবে না (স্ত্রী সহবাস করবে না) যতক্ষণ না তারা পবিত্র হয়। অত:পর যখন উত্তম রূপে পবিত্রতা অর্জন করবে তখন তাদের কাছে গমন কর-যেভাবে আল্লাহ তোমাদেরকে হুকুম দিয়েছেন।” (সূরা বাকারা: ২২২)

আল্লাহ তাআলা উক্ত আয়াতে উত্তমরূপে পবিত্রতা অর্জন না করা পর্যন্ত স্ত্রীগমনে নিষেধ করেছেন। আর ঋতুবতি মহিলার হায়েয বন্ধ হওয়ার পর সে ততক্ষণ পর্যন্ত পরিপূর্ণ পবিত্র হিসেবে গণ্য হবে না যতক্ষণ না গোসলের মাধ্যমে পবিত্রতা অর্জন করে।
কেউ যদি অজ্ঞতা বশত: এমনটি করে তাহলে এ বিষয়ে জানার পর তার জন্য করণীয় হল, আল্লাহর নিকট তওবা-ইস্তিগফার করা এবং ভবিষ্যতে আর এমনটি না করা।
আল্লাহু আলাম।
▬▬▬ ◈◉◈▬▬▬
উত্তর প্রদানে:
আব্দুল্লাহিল হাদী বিন আব্দুল জলীল মাদানী
দাঈ, জুবাইল দাওয়াহ এন্ড গাইডেন্স সেন্টার, KSA

Share This Post