ভাগে কুরবানি দেওয়ার ক্ষেত্রে তা একজন ব্যক্তি এবং তার পরিবারের পক্ষ থেকে যথেষ্ট হবে

প্রশ্ন: দু জন ব্যক্তি প্রত্যেকে সমপরিমাণ টাকা দিয়ে কুরবানির উদ্দেশ্যে একটি পশু ক্রয় করে নিজ নিজ পরিবারের পক্ষ থেকে কুরবানি করতে চান। এ পদ্ধতি সঠিক কিনা মেহেরবানি করে জানাবেন।▬▬▬▬▬▬▬✿◈✿▬▬▬▬▬▬▬
উত্তর: গরু বা উটে সর্বোচ্চ ৭ ভাগে কুরবানি দেওয়া জায়েজ। (ছাগল, দুম্বা, ভেড়া ইত্যাদিতে নয়)। তবে এর নিচে ২, ৩, ৪, ৫ বা ৬ ভাগে কুরবানি দেওয়া আরও উত্তমপন্থায় জায়েজ। এতে বাকি ভাগাগুলোর জন্য নফল হিসেবে কুরবানি দাতা সওয়াব পাবে ইনশাআল্লাহ। মুহাক্কিক আলেমগণ এমনটি বলেছেন।
তবে ভাগে কুরবানি দেওয়ার ক্ষেত্রে একটি ভাগা একজন ব্যক্তি এবং তার পরিবারের পক্ষ থেকে যথেষ্ট হবে কিনা সে বিষয় দ্বিমত থাকলেও সঠিক কথা হলো, যেহেতু পরিবারে প্রধান কর্তা ব্যক্তির উপর সামর্থ্য থাকলে কুরবানি দেওয়া কর্তব্য (সুন্নতে মুয়াক্কাদা মতান্তরে ওয়াজিব) সেহেতু সে নিজে একটা স্বতন্ত্র কুরবানি দিক বা উট/গরুতে এক ভাগায় অংশগ্রহণ করুক তা তার নিজের এবং তার পরিবারের পক্ষ থেকে যথেষ্ট হবে। অর্থাৎ নিয়তের মধ্যে সবাইকে শরিক করলে আল্লাহ তায়ালা সবাইকে সওয়াব দান করবেন ইনশাআল্লাহ।

▪️এ বিষয়ে বর্তমান যুগের শ্রেষ্ঠ আলেমদের কিছু ফতোয়া তুলে ধরা হলো:
🔸 ১. সৌদি আরবের সাবেক গ্র্যান্ড মুফতি বিশ্ব নন্দিত ফকিহ আল্লামা আব্দুল আজিজ বিন বায রাহ. বলেন,
قد دلت السنة الصحيحة عن النبي ﷺ أن الرأس الواحد من الإبل والبقر والغنم يجزئ عن الرجل وأهل بيته وإن كثروا، أما السبع من البدنة والبقرة، ففي إجزائه عن الرجل وأهل بيته تردد وخلاف بين أهل العلم، والأرجح أنه يجزئ عن الرجل وأهل بيته؛ لأن الرجل وأهل بيته كالشخص الواحد، ولكن الرأس من الغنم أفضل
“নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম থেকে বর্ণিত বিশুদ্ধ সুন্নাহ দ্বারা প্রমাণিত যে, একটি উট, গরু বা ছাগল একজন ব্যক্তি ও তার পরিবারের পক্ষ থেকে যথেষ্ট হবে যদিও তাদের সংখ্যা অনেক হয়।
কিন্তু উট বা গরুর সাত ভাগের একভাগ একজন ব্যক্তি এবং তার পরিবারের পক্ষ থেকে যথেষ্ট হবে কি না সে ব্যাপারে আহলুল ইলমদের মাঝে দ্বিমত থাকলেও অধিক অগ্রাধিকাযোগ্য কথা হল, তা একজন ব্যক্তি ও তার পরিবারের পক্ষ থেকে যথেষ্ট হবে। কারণ একজন মানুষ ও তার পরিবার একজন ব্যক্তির মতই। তবে একটি ছাগল কুরবানি করা অধিক উত্তম।”
🔸 ২. বিংশ শতকের অন্যতম শ্রেষ্ঠ ফকিহ ও গবেষক আল্লামা মুহাম্মদ বিন সালেহ আল উসাইমিন রহ. বলেন,
فإذا كان الإنسان يضحي بالواحدة بالشاة الواحدة عنه وأهل بيته فإنه يضحي بالسبع عنه وعن أهل بيته لأن هذا تشريك في الثواب والتشريك في الثواب لا حصر له
“অতএব একজন মানুষ যেমন একটি ছাগল তার পক্ষ থেকে এবং তার পরিবারের পক্ষ থেকে কুরবানি দিতে পারে তেমনি (উট বা গরুতে) সাত ভাগের এক ভাগ তার পক্ষ থেকে এবং তার পরিবারের পক্ষ থেকে কুরবানি দিতে পারে। কেননা এখানে সওয়াবের মধ্যে অন্যদেরকে শরিক করা হচ্ছে। আর সওয়াবে শরিক করানোর কোন সীমা নির্ধারিত নয়।” [Source: alarhar]
🔸৩. সৌদি আরবের স্থায়ী ফতোয়া বোর্ড-এর ফতোয়া হল:
تجزئ البدنة والبقرة عن سبعة ، سواء كانوا من أهل بيت واحد أو من بيوت متفرقين ، وسواء كان بينهم قرابة أو لا ؛ لأن النبي صلى الله عليه وسلم أذن للصحابة في الاشتراك في البدنة والبقرة كل سبعة في واحدة ، ولم يفصل ذلك ” انتهى .
“فتاوى اللجنة الدائمة” (11/401)
“উট এবং গরুতে সাত ভাগে কুরবানি করা যথেষ্ট-চাই তারা সকলে এক বাড়ির হোক ও অথবা ভিন্ন ভিন্ন বাড়ির হোক। চাই তাদের মধ্যে আত্মীয়তার সম্পর্ক থাকুক অথবা না থাকুক। কারণ নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম সাহাবিদেরকে উট এবং গরুতে সাত ভাগে অংশগ্রহণের অনুমতি দিয়েছেন কিন্তু এ ব্যাপারে তিনি আর বিস্তারিত কিছু বলেননি।” [ফাতাওয়া লাজনাহ দায়েমাহ, ১১/৪০১]
الله اعلم بالصواب
▬▬▬▬✿◈✿▬▬▬▬
উত্তর প্রদানে:
আব্দুল্লাহিল হাদী বিন আব্দুল জলীল।
দাঈ, জুবাইল দাওয়াহ এন্ড গাইডেন্স সেন্টার, সৌদি আরব।

Share On Social Media