কোরআন ও সহীহ সুন্নাহ ভিত্তিক প্রশ্নোত্তর প্রচার করাই হল এই ওয়েবসাইটের মূল উদ্দেশ্য।।

জামাআতে সালাত সংক্রান্ত কতিপয় প্রশ্নের উত্তর

প্রশ্ন: ১. মসজিদে প্রথম জামাআত না পাওয়ার কারণে দু জন ব্যক্তি একসাথে জামাআতে সালাত আদায় করার ক্ষেত্রে কি পূণরায় ইকামত দিতে হবে?
২. দু জন মিলে জামাআতে সালাত আদায় করলে মুক্তাদি ইমামের ডান পার্শ্বে না কি বাম পার্শ্বে দাঁড়াবে এবং সে ক্ষেত্রে সে কি ইমামের বারাবর দাঁড়াবে না কি কিছুটা পেছনে সরে দাঁড়াবে?
৩. দুজন ব্যক্তি জামআতে সালাত আদায় করার সময় যদি ৩য়, ৪র্থ বা আরও বেশি মুসল্লী আসা শুরু করে তাহলে কি ২য় পেছনে সরে আসবে না কি নিজ স্থানেই থাকবে? কারণ অনেক সময় দেখা যায়, কিছু মানুষ ইমামের বরাবর একই কাতারে দাঁড়িয়ে যায়। এ ক্ষেত্রে সঠিক নিয়ম কি?

উত্তর:

▪১. প্রথম জামাআত না পেলে পরবর্তীতে যখনই দু বা অতোধিক ব্যক্তির মাধ্যমে জামাআতে সালাত আদায় করা হবে তখনই ফরয সালাতের পূর্বে ইকামত দেয়া উত্তম। এমনকি একাকী সালাত আদায়ের ক্ষেত্রেও।

▪২. দু জন ব্যক্তি জামআতে সালাত আদায় করলে মুক্তাদি ইমামের ডান পাশে দাঁড়াবে। ক্ষেত্রে ইমাম মুক্তাদি পাশাপাশি পায়ের সাথে পা মিলিয়ে দাঁড়াবে। মুক্তাদি ইমাম থেকে চার আঙ্গুল বা কিছুটা পেছনে সরে দাঁড়ানোর প্রচলিত রীতি সুন্নাহ পরিপন্থী। কারণ হাদিসে কাতার সোজা করার ব্যাপারে যথেষ্ট গুরুত্ব এসেছে এবং কাতারে বক্রতা থাকার ব্যাপারে সতর্কতা বর্ণিত হয়েছে।
এখানে ইমাম মুক্তাদি দুজন হলেও যেহেতু এটি একটি কাতার সেহেতু মুক্তাদি এভাবে ইমাম থেকে একটু পেছনে সরে দাঁড়ালে কাতারে বক্রতা সৃষ্টি হলো। সে কারণে তা সুন্নাহ পরিপন্থী কাজ হবে।

সঠিক পদ্ধতি হল, দুজন ব্যক্তি সালাত আদায়ের ক্ষেত্রে ইমাম ও মুক্তাদি সমান্তরালভাবে পাশাপাশি দণ্ডায়মান হবে। তবে মুক্তাদি সতর্ক থাকবে যেন, সে ইচ্ছাকৃত ভাবে ইমাম থেকে কিছুটা সামনে চলে না যায়। ইচ্ছাকৃত ইমামের সামনে চলে গেলে মুক্তাদির সালাত বাতিল হয়ে যাবে। কিন্তু বেখেয়ালে সামনে চলে গেলে তৎক্ষণাৎ পেছনে সরে আসবে। এতে সালাতের কোন ক্ষতি হবে না ইনশাআল্লাহ।

▪৩. দু জন ব্যক্তি জামাআতে সালাত আদায়ের সময় যদি ৩য় ব্যক্তি জামাআতে শরিক হতে চায় তাহলে তার করণীয় হল, মুক্তাদির শরীরে হালকা স্পর্শের মাধ্যমে তাকে পেছনে সরে আসর জন্য ইশারা দেয়া। সে ব্যক্তি পেছনে সরে আসার পর ৩য় ব্যক্তি তাকবীর দিয়ে পেছনের কাতারে জামাআতে দাঁড়াবে। এ ক্ষেত্রে ২য় ব্যক্তির উচিৎ, ইশারায় সাড়া দেয়া। কিন্তু দুর্ভাগ্য যে, আমাদের দেশের অধিকাংশ মানুষেরই এ বিষয়ে সঠিক জ্ঞান না থাকার কারণে ৩য়, ৪র্থ বা আরও বেশি মানুষ একই কাতারে সালাত আদায় করে! এটা দ্বীনের সহিহ জ্ঞান না থাকার ফলাফল।
উল্লেখ্য যে, এ ক্ষেত্রে পেছনে জায়গা সঙ্কট হলে ইমামের কর্তব্য হবে, নিজ থেকেই সামনে চলে যাওয়া। কিন্তু যদি সামনেও জায়গা সঙ্কট হয় তাহলে সে ক্ষেত্রে ৩য় ব্যক্তি ইমামের বাম পাশে দাঁড়াবে এবং তিন জনই এক কাতারে সালাত আদায় করবে। এভাবে একই কাতারে ইমাম সহ বহু সংখ্যক মুসল্লী হলেও কোন আপত্তি নাই ইনশাআল্লাহ। কারণ, জায়গা সঙ্কট। আল্লাহু আলাম।
••••••••••••••••••••
উত্তর প্রদানে:
আব্দুল্লাহিল হাদী বিন আব্দুল জলীল
দাঈ, জুবাইল দাওয়াহ এন্ড গাইডেন্স সেন্টার, ksa

Share This Post