কোরআন ও সহীহ সুন্নাহ ভিত্তিক প্রশ্নোত্তর প্রচার করাই হল এই ওয়েবসাইটের মূল উদ্দেশ্য।।

কাল্পনিক গল্প বা উপন্যাস লেখা কি জায়েয বা এটা কি মিথ্যার মধ্যে গণ্য হবে?

উত্তর:
গল্প ও উপন্যাসের বিষয়ের উপর নির্ভর করে তার ব্যাপারে হুকুম আরোপিত হবে। যদি সেগুলোতে মানুষকে ভাষাজ্ঞান, সাহিত্যচর্চা, ইসলাম পালনে উদ্বুদ্ধ করণ, দেশপ্রেম, চারিত্রিক উৎকর্ষ সাধন তথা মানুষের জন্য কল্যাণকর ও উপকারী কিছু শিখানো হয় তাহলে তা জায়েয। এ গল্প তখন উদাহরণ ও উপমা হিসেবে পরিগণিত হবে।
উদাহরণ পেশ করার উদ্দেশ্যে কাল্পনিক ঘটনা পেশ করলে তা মিথ্যার অন্তর্ভূক্ত হবে না। যেমন এভাবে উদাহরণ পেশ করা যে, এক লোক এটা করেছে বা এটা বলেছে তার পরিণতিতে এটা ঘটেছে।
আল্লাহ তাআলা আল কুরআনে এমন উদাহরণ পেশ করেছেন। আল্লাহ তাআলা বলেন:
وَاضْرِبْ لَهُم مَّثَلًا رَّجُلَيْنِ جَعَلْنَا لِأَحَدِهِمَا جَنَّتَيْنِ مِنْ أَعْنَابٍ وَحَفَفْنَاهُمَا بِنَخْلٍ وَجَعَلْنَا بَيْنَهُمَا زَرْعًا “আপনি তাদের কাছে দু ব্যক্তির উদাহরণ বর্ণনা করুন। আমি তাদের একজনকে দুটি আঙ্গুরের বাগান দিয়েছি….।” (সূরা কাহাফ: ৩২)

তিনি আরও বলেন:
ضَرَبَ اللَّـهُ مَثَلًا رَّجُلًا فِيهِ شُرَكَاءُ مُتَشَاكِسُونَ وَرَجُلًا سَلَمًا لِّرَجُلٍ هَلْ يَسْتَوِيَانِ مَثَلًا
“আল্লাহ এক দৃষ্টান্ত বর্ণনা করেছেনঃ একটি লোকের উপর পরস্পর বিরোধী কয়জন মালিক রয়েছে, আরেক ব্যক্তির প্রভু মাত্র একজন-তাদের উভয়ের অবস্থা কি সমান?” (সূরা যুমার: ২৯)

আল্লাহ তাআলা উক্ত আয়াতদ্বয়ে উদাহরণ হিসেবে দু জন ব্যক্তির কথা উল্লেখ করেছেন-মনুষের শিক্ষার জন্য কিন্তু সেগুলো কোন বাস্তবিক কোন ঘটনা নয়। (আল্লামা উসাইমীন রহ. এর বক্তব্য থেকে সংক্ষেপিত)

পক্ষান্তরে যদি গল্প ও উপন্যাসে অশ্লীলতা, অসচ্চরিত্র, হত্যাকাণ্ড, চুরি-ডাকাতী ও মানুষের জন্য ক্ষতিকারক কিছু থাকে তাহলে তা অবশ্যই বৈধ নয়। আল্লাহু আলাম।

*উত্তর প্রদানে:*
আব্দুল্লাহিল হাদী বিন আব্দুল জলীল
দাঈ, জুবাইল দাওয়াহ এন্ড গাইডেন্স সেন্টার, সৌদি আরব।।

Share This Post