কোরআন ও সহীহ সুন্নাহ ভিত্তিক প্রশ্নোত্তর প্রচার করাই হল এই ওয়েবসাইটের মূল উদ্দেশ্য।।

কাউকে কিছু দান করার পর ফিরিয়ে নেয়া হারাম

প্রশ্ন: আমার স্বামীকে তার মামা-মামী বাল্যকাল থেকে প্রতিপালন করেছে এবং মামী খুশি হয়ে তাকে স্বেচ্ছায় কিছু সম্পদ হেবা করেছে। কিন্তু মামী মারা যাওয়ার পর মামা এখন সে সম্পদ ফেরত নিতে চায়। এটি কি শরীয়ত সম্মত?
উত্তর:
যদি আপনার স্বামীর মামী (যিনি তাকে বাল্যাকাল থেকে প্রতিপালন করেছেন) আপনার স্বামীকে স্বেচ্ছাপ্রণোদিত হয়ে বিনিময় গ্রহণ ছাড়া কোন সম্পদ হেবা করে থাকেন এবং আপনার স্বামীর কাছে তা হস্তান্তরিত হয়ে থাকে তাহলে এখন তার মামার জন্য তা ফেরত নেয়া বৈধ নয়।
শুধু তাই নয় বিশেষ করে হেবাকারী মৃত্যুর পর হেবাকৃত সম্পদ ফেরত নেয়া দেশিও আইনেও আইন বর্হিভূত।
অবশ্য ইসলামী আইনে একমাত্র পিতা তার সন্তানকে কোন সম্পদ হেবা করে থাকলে তা ফেরত নিতে পারে। এ ছাড়া অন্য কারও ক্ষেত্রে তা বৈধ নয়।
রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেন:
ইবনু ‘আব্বাস (রাঃ) থেকে বর্ণিতঃ

তিনি বলেন, নবী (সাল্লাল্লাহু ‘আলাইহি ওয়া সাল্লাম) বলেছেন, দান করার পর যে তা ফিরিয়ে নেয়, সে ঐ লোকের মত, যে বমি করে তা আবার খায়।” (সহীহ বুখারীঃ ২৬২১)
ইমাম মুসলিম সহীহ মুসলিমে হেবা অধ্যায়ে অনুচ্ছেদ রচনা করেছেন এভাবে:
تحريم الرجوع في الصدقة والهبة بعد القبض
“দান-সদকা ও হেবা হস্তান্তরের পরে ফিরিয়ে নেয়া হারাম।”
💠 জন্মদাতা পিতা তার সন্তানকে কোন সম্পত্তি হেবা করে থাকলে ইচ্ছে করলে ফিরিয়ে নিতে পারে। যেমন হাদীসে বর্ণিত হয়েছে-
لا يحل لمسلم أن يعطي العطية ثم يرجع فيها، إلا الوالد فيما يعطي ولده
“কোন মুসলিম কোন দান করার পর ফিরিয়ে নেয়া বৈধ নয়। তবে পিতা তার সন্তানের নিকট থেকে ফিরিয়ে নিতে পারে।” (মুসনাদে আহমদ, আব্দুল্লাহ ইবনে উমর রা. হতে বর্ণিত। হাদীস নং ৫৪৬৯, তিরমিযী হা/২১৩২) আল্লাহু আলাম

উত্তর প্রদানে:
আব্দুল্লাহিল হাদী বিন আব্দুল জলীল মাদানী
দাঈ, জুবাইল দাওয়াহ, সৌদি আরব।।

Share This Post